ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে বিশ্ব রেকর্ড

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ ঢাকা প্রিমিয়ার টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লীগে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন পারটেক্সের ইসহারুল ইসলাম ও জয়নুল ইসলাম। নবম উইকেট জুটিতে তান্ডব চালিয়ে ৭৩ রান করেন এই দুই ব্যাটসম্যান। যা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নবম উইকেট জুটির বিশ্বরেকর্ড। নবম উইকেট জুটির আগের রেকর্ডটি ছিল কোরি অ্যান্ডারসন ও জশ ডেভির। ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের টি- টোয়েন্টি ব্লাস্টে সারের বিপক্ষে সমারসটের হয়ে ৬৯ রানের জুটির রেকর্ড গড়েছিলেন তারা।
বুধবার রেলিগেশন পর্বের এই ম্যাচটি ছিল নিয়মরক্ষার। গুরুত্বহীন এই ম্যাচটিতে বিশ্বরেকর্ডের পাশাপাশি জুটিতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছেন রূপগঞ্জের দুই ওপেনার মেহেদী মারুফ ও জাকের আলী। ওপেনিং জুটিতে এরা দু’জন করেছেন ১৭৩ রান।
এর আগের রেকর্ডটিও হয়েছিল সাভারের তিন নম্বর মাঠে। রাকিন আহমেদ আর মোহাইমিনুল খান দুদিন আগেই ওল্ড ডিওএইচএসের বিপক্ষে ১৩১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছিলেন। সেটি ছিল তৃতীয় উইকেটে। রেকর্ড জুটি গড়েও তিন অঙ্কের কোটা ছুঁতে পারেননি কেউই। জাকের আলী ৪৮ বলে ৭৬ রান করে আউট হওয়ার পর মেহেদী ফেরেন ৯৪ রান করে। ৬৩ বলের ইনিংসটি সাজান ৯টি চার ও ৬টি ছয়ের মারে। এতে নির্ধারিত ২০ ওভারে তিন উইকেটে ২০০ রান সংগ্রহ করে রূপগঞ্জ। এটি এবারের আসরে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।
২০১ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য টপকাতে নেমে ১৫ ওভারে ১০০ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে বসে পারটেক্স। এরপরেই ব্যাটিংয়ে তান্ডব চালান পারটেক্সের দুই ব্যাটসম্যান। ইসহারুল ও জয়নুল। এরা দু’জন শেষ ৫ ওভারে ৬ ছক্কা ও ৫ চারের সংগ্রহ করেন ৭৩ রান। এতেই রেকর্ড বইয়ে জায়গা করেনেন পারটেক্সের এই দুই ব্যাটসম্যান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নবম উইকেট জুটির বিশ্বরেকর্ড গড়েন দুজন। সাতে নামা ইসহারুল অপরাজিত থাকেন ২২ বলে ৩৮ রান করে। ৯এ নেমে পেসার জয়নুল খেলেন ৪ ছক্কায় ১৪ বলে ৩৭ রানের ইনিংস। তবুও ১৭৩ রানে থামে পারটেক্সের ইনিংস। এতে ২৭ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। এবার প্রিমিয়ার লীগ থেকে অবনমন হয়ে গেল পারটেক্সের। প্রথম পর্বের ১১ ম্যাচের সঙ্গে রেলিগেশন পর্বের ২ ম্যাচ, সবে মিলিয়ে ১৩ ম্যাচে কোনও জয়ের স্বাদ পায়নি দলটি। অবনমনের ধাক্কা সামলে উঠা রূপগঞ্জের এটি টানা দ্বিতীয় জয়।

Lab Scan