ট্রাম্পের যুদ্ধের ক্ষমতা কমাতে বিল আসছে মার্কিন কংগ্রেসে

লোকসমাজ ডেস্ক॥ ইরানের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সামরিক শক্তি কমিয়ে দিতে চায় মার্কিন কংগ্রেস। এ বিষয়ে একটি প্রস্তাব ভোটে দেয়ার কথা বলেছেন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ, প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। তিনি বলেছেন, এ সপ্তাহেই যুদ্ধের ক্ষমতা সম্পর্কিত একটি বিল প্রতিনিধি পরিষদে উত্থাপন করা হবে এবং তা ভোটে দেয়া হবে। এই প্রস্তাবে ইরানের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সামরিক শক্তি ব্যবহারের ক্ষমতা সীমিত করার কথা বলা হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন আরব নিউজ।
রোববার দিনশেষে এক বিবৃতিতে ন্যান্সি পেলোসি বলেছেন, এর আগে সিনেটর টিম কেইন একই রকম প্রস্তাব জমা দিয়েছেন সিনেটে। এবার যে প্রস্তাবটি আসছে তা একই রকম। এতে কংগ্রেসের দীর্ঘদিনের তদারকির ক্ষেত্রে বলা হয়েছে যে, যদি আর কোনো কংগ্রেসনাল পদক্ষেপ না নেয়া হয়, তাহলে ইরানের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক সামরিক শত্রুতা বন্ধ হতে হবে ৩০ দিনের মধ্যে।
এই প্রস্তাবটি সহজেই হয়তো ডেমোক্রেট নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি পরিষদে পাস হবে। কিন্তু সিনেটে তা পাস হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কারণ, সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ হলো ট্রাম্পের রিপাবলিকানরা। তাদের বেশির ভাগই ইরান ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন।
ওদিকে ইরাক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের এবং বিদেশী সেনাদের প্রত্যাহার চেয়ে ইরাকি পার্লামেন্টে প্রস্তাব পাস হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কড়া জবাব দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, মার্কিন সেনাদের প্রত্যাহার করা হলে ইরাকের বিরুদ্ধে ইরানের চেয়েও কড়া অবরোধ দেয়া হবে। কিন্তু তার এমন হুমকি সহায়ক নয় বলে মন্তব্য করেছেন জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস। তিনি বলেছেন, ইরাকের বিরুদ্ধে অবরোধের যে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র তা কোনো সাহায্য করবে না। এক্ষেত্রে আলোচনার মাধ্যমে ওই দেশটিকে বুঝিয়ে আয়ত্তে আনতে হবে। কোনো হুমকি দেয়া যাবে না। অন্যদিকে ২০১৫ সালে সম্পাদিত পারমাণবিক চুক্তি না মানার যে ঘোষণা দিয়েছে ইরান তা নিয়ে আজ সোমবার বৈঠকে বসার কথা জার্মানি, বৃটেন ও ফ্রান্সের কর্মকর্তাদের। হেইকো মাস বলেছেন, এই বৈঠকের পরে একটি বিবৃতি দেয়া হবে।

ভাগ