ঝিনাইদহ পৌরসভা টিকাদান কেন্দ্রে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন মায়েরা

0

 

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ॥ তহমিনা বেগমের সিজার সম্পন্ন হয়েছে এক মাস আগে। তার পক্ষে তিন তলায় উঠে শিশুর টিকা দেয়া কষ্টসাধ্য। কিন্তু তার মতো শতাধিক মাকে ঝিনাইদহ পৌরসভায় এসে এভাবে শিশুদের টিকা দিতে হচ্ছে। মনিরা খাতুন নামে এক গৃহবধূ জানালেন  সিঁড়ি বেয়ে তার পক্ষে তিন তলায় উঠতে খুবই কষ্ট হয়। সন্তান কোলে নিয়ে উপরে উঠতে গিয়ে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। কিন্তু প্রতিকার নেই। আর এভাবেই চলছে ঝিনাইদহ পৌরসভা ভবনে ইপিআই টিকাদান কর্মসূচি। মায়েদের কষ্ট বা দুঃখ শোনার মতো কেউ নেই বলেও অনেকের অভিযোগ।  জানা গেছে, ইপিআই টিকাদান কর্মসূচির আওতায় ঝিনাইদহ পৌরসভায় ৮০ থেকে ১২০ জন মাকে শিশুর টিকাদানের জন্য ঝিনাইদহ পৌরসভার তৃতীয়তলায় আনতে হয়। এভাবে মায়েদের ১৫ মাস ধরে টিকা দিতে গিয়ে অনেক মা শিশু কোলে নিয়ে তিন তলায় উঠতে হাঁফিয়ে উঠেছেন। কিন্তু পৌর কর্তৃপক্ষের এদিকে কোন ভ্রুক্ষেপ নেই। মাসের পর মাস মায়েরা ভোগান্তির শিকার হলেও দেখার কেউ নেই। ঝিনাইদহ শহরের অনেক মা জানিয়েছেন আগে ঝিনাইদহ পৌরসভার নিচের তলায় টিকা দেয়া হতো। কিন্তু এখন দেয়া হচ্ছে তৃতীয় তলায়। বিষয়টি তারা কৃর্তপক্ষকে জানালেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। সামিরা খাতুন নামে এক নারী জানান, পৌরসভার তৃতীয় তলায় তাদের উঠতে গিয়ে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। কিছুক্ষণ হাঁফ নিয়ে আবার ওঠেন। তিনি টিকাদান কক্ষ নিচের তলায় আনার দাবি জানান। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ পৌরসভার মেয়র কাইয়ুম শাহরিয়া জাহেদী হিজলের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নি। তবে প্যানেল মেয়র সাইফুল ইসলাম মধু জানান, তিনি বিষয়টি মেয়রকে জানিয়ে ব্যবস্থা নেবেন। ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন সুপ্রা রানী দেবনাথ জানান, অবশ্যই টিকাদানের কেন্দ্র হতে হবে নিচের তলায়। ঝিনাইদহ পৌরসভা যদি এটা করে তবে চরম অন্যায় কাজ হচ্ছে। তিনি বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে তড়িত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।

 

Lab Scan