ঝিকরগাছা থানায় দায়েরকৃত নাশকতামুলক মামলায় হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন পেলেন ১৯ বিএনপি নেতাকর্মী

0

ঝিকরগাছা (যশোর) সংবাদদাতা॥ যশোরের ঝিকরগাছা থানায় পুলিশের দায়েককৃত কথিত নাশকতামুলক মামলা থেকে আগাম জামিন পেলেন বিএনপির ১৯ নেতাকর্মী। গতকাল রবিবার মহামান্য হাইকোট বিভাগের বিচারক মোস্তফা জামান ইসলাম ও এএসএম আব্দুল মোবিন এর দৈত বেঞ্চ তাদের জামিন দিয়েছেন। জামিন প্রাপ্তরা হলেন, পৌরসদরের মোবারকপুর গ্রামের মৃত-গ্রীন বিশ^াসের ছেলে ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক মোর্তজা এলাহী টিপু, মতিয়ার রহমানের ছেলে পৌর স্বেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক নুরুল হুদা, পৌর বিএনপির সভাপতি হারুণ অর রশীদের ছেলে মারুফ হোসেন, ঝিকরগাছাসদর ইউপির জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত-আলতাফ মুন্সির ছেলে উপজেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক সাবেক চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম, মোবারকপুর গ্রামের ছব্বত আলীর ছেলে পৌর যুবদলের আহবায়ক আরাফাত হোসেন কোমল, মৃত-আনসার ডাক্তারের ছেলে পৌর যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক নুরুন্নবী খাঁন শিপন, সৈয়দ আব্দুল আজিজের ছেলে ছোট বাবু, মোবারকপুর গ্রামের কিতাব আলীর ছেলে ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী পিয়াল হাসান, মৃত-গোলাম মোস্তফার ছেলে উপজেলা কৃষকদলের সাধারন সম্পাদক ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মিজানুর রহমান কালু, মৃত-আব্দুর রহমানের ছেলে পৌর স্বেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ম-আহবায়ক ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী নুরুজ্জামান বাবু, মৃত-শমসের আলী সরদারের ছেলে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী সরদার শহিদুল ইসলাম বুদো, পুরানন্দরপুর গ্রামের মোস্তফার ছেলে শাকিল হোসেন, মৃত-খোদা বক্সের ছেলে ৭নং ওয়ার্ডেও কাউন্সিলর প্রার্থী মিজানুর রহমান বিশ^াস, থানামোড় এলাকার মৃত-আব্দুল খালেকের ছেলে ৮নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর এবং প্রার্থী গোলাম কাদের বাবলু, পুরান্দরপুর গ্রামের মৃত-সৈয়দ আব্দুল কাদেরের ছেলে ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী নুরুজ্জামান বাবলা, হাজিরালী গ্রামের নুরবক্স মন্ডলের ছেলে ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও পৌর বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক আব্দুর রশিদ, মোবারকপুর গ্রামের মৃত-রতন বিশ^াসের ছেলে পৌর স্বেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ম-আহবায়ক রোকনুজ্জামান বিশ^াস, হাজের আলী গ্রামের মৃত-ফকির মোড়লের ছেলে বিএনপি নেতা বাবলুর রহমান, পুরান্দরপুর গ্রামের মৃত-মনছের আলীর ছেলে বেবুল হোসেন ও মৃত-আবুল হোসেনের ছেলে কবির হোসেন। উল্লেখ্য, গত ১ জানুয়ারী ঝিকরগাছা থানার এস আই সিরাজুল ইসলাম বাদি হয়ে ঝিকরগাছা থানায় ১১ জন কাউন্সিলর প্রার্থীসহ বিএনপি ও অংগ সংগঠনের শীর্ষ ৩৪ নেতাকর্মীসহ ৬০/৭০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে নাশকতামুলক মামলা দায়ের করেন। যার নং-০২, তাং-০১/০১/২০২২ ইং। ধারা-১৯৭৪ সালের ১৫(৩)/২৫ডি ধারাসহ ১৯০৮ সালের বিস্ফোরক উপাদানাবলী আইনের ৩/৪/৫/৬ ধারার অপরাধ। ইতিমধ্যে উল্লেখিত মামলায় ৪ জন এজাহারভুক্তসহ ৬ জনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন ঝিকরগাছা থানা পুলিশ। এসময় আদালত চত্তর উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির (খুলনা বিভাগীয়) ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ¦ অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, যশোর জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য আলহাজ¦ মিজানুর রহমান খাঁনসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ। এর আগে গত ৪ জানুয়ারী মহামান্য হাইকোর্ট থেকে আরো ১০ জন বিএনপি নেতাকর্মী জামিন পেয়েছিলেন। তারা হলেন, ঝিকরগাছা পৌর বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আরমান হোসেন কাকন, ৬নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর ও প্রার্থী মশিয়ার রহমান, ৯নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর ও প্রার্থী মতিয়ার রহমান, উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক আরাফাত কল্লোল, পৌর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শাহাজাহান আলী, পৌর যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক শামিম হোসেন ও আজিম হোসেন, ঝিকরগাছা মাস্টারপাড়ার বাসিন্দা মৃত-লুৎফর বিশ^াসের ছেলে বিএনপি নেতা তৌহিদুজ্জামান বাবু ও ডাবলু, কীর্তিপুর গ্রামের মৃত-ইমান আলীর ছেলে ইউনুস আলী। এছাড়া উক্ত মামলায় ৪ এজাহারভুক্তসহ ৬জন আটক হয়ে জেল হাজতে ও একজন ভারতে রয়েছে বলে জানাগেছে।

Lab Scan