ঝিকরগাছায় সড়ক বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ

0

 

ঝিকরগাছা (যশোর) সংবাদদাতা॥ যশোরের ঝিকরগাছার পল্লীতে সরকারি অর্থায়নে নির্মিত সড়ক বন্ধ করে দেয়ায় বিপাকে পড়েছে অন্তত ২০টি পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শংকরপুর ইউনিয়নের ছোট পৌদাউলিয়া গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর পক্ষে শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত আবেদন করা হলেও তার সুরাহা হয়নি।
অভিযোগ, উপজেলার শংকরপুর ইউনিয়নের ছোট পৌদাউলিয়া গ্রামের আমতলা মোড় থেকে বড় পৌদাউলিয়া অভিমুখ সড়কের আব্দুল হামিদের বাড়ির পাশ হতে পূর্বপাড়া মসজিদ ভায়া জাহিদুলের বাড়ি পর্যন্ত সংযোগ সড়কটি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে ফ্ল্যাট সলিং করা হয়। এ সড়ক দিয়ে অন্ত:ত ২০টি পরিবার যাতাযাত করে। কিন্তু গত ১৯ ডিসেম্বর সকালে গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুস সালাম, আব্দুর রহমান, আব্দুর রউফ, আব্দুস সালামের ছেলে আবু জাফর ও আবুবকররা সড়কটি বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেন। এ সময় বাধা দিতে গেলে একই এলাকার মসজিদের সাবেক ইমাম ইয়াকুব হোসেন (৭০)-কে গালিগালাজসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। ইতোপূর্বেও উল্লেখিত সড়কটি কয়েকদফা বন্ধ করলেও স্থানীয়ভাবে মীমাংশা হয়।
রোববার সন্ধ্যায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান গোবিন্দ কুমার চ্যাটার্জী বলেন, বিষয়টি তাকে এখনো পর্যন্ত জানানো হয়নি। তবে তাকে কেউ জানালে বিষয়টি সমাধান করবেন।
একই এলাকার ভুক্তভোগী ফজের আলী ও জিয়াউর রহমান জানান, রাস্তাটি বন্ধ করে দেয়ায় তাদের চলাচলে বেশ অসুবিধা হচ্ছে। এ ব্যাপারে মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রউফ বলেন, এটি রেকর্ডের রাস্তা নয়। তাদের নিজেদের জমির ওপর দিয়ে সাবেক চেয়ারম্যান নিছার আলীর ইচ্ছায় সলিংক করতে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু প্রতিবেশী ইয়াকুব হোসেনের ছেলে আল-আমীন শালিস না মেনে রাস্তার পাশে নিজ ঘরের সিঁড়ি করায় স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শে রাস্তাটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

 

Lab Scan