ঝিকরগাছায় ভুল চিকিৎসায় রোগী সংকটাপন্ন

0

ঝিকরগাছা (যশোর) সংবাদদাতা॥ যশোরের ঝিকরগাছায় ডায়বেটিসে আক্রান্ত রোগীকে ভুল চিকিৎসা দেয়ায় তার জীবন সংকটাপন্ন হয়ে পড়েছে। যার দায় এড়াতে চাইছেন কথিত ডাক্তার রাজেশ কান্তি রায়। নিজেকে বাত, ব্যথা ও প্যারালাইসিস রোগ বিশেষজ্ঞ দাবি করা কথিত ওই ডাক্তার নিয়মিত রোগী দেখছেন ঝিকরগাছা উপজেলা মোড়ের ফেমাস ফিজিওথেরাপি অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারে। ভুক্তভোগী ডায়বেটিসে আক্রান্ত রোগী উপজেলা সদরের মল্লিকপুর গ্রামের মৃত নূর মিয়ার ছেলে রুস্তম আলী মিয়া(৬০) অভিযোগ করেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে ডায়বেটিসে ভুগছিলেন। এছাড়া পায়ের যন্ত্রণার কারণে তিনি প্রায় ২মাস আগে কথিত ডাঃ রাজেশ কান্তি রায়ের শরণাপন্ন হন। সেই থেকে রুস্তম আলী তার নিজ বাড়ি থেকে ডা. রাজেশ কান্তি রায়ের পরামর্শে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। এক পর্যায়ে চিকিৎসাকালীন সময়ে রোগীর দু’পায়ে রস জমে ফুলে গেলে ডা. রাজেশ কান্তি রায় কুলের কাঁটা ফুটিয়ে জমাটবাধা পানি অপসারণ করেন। ফলে রোগীর দু’পায়ে ক্রমশ ঘা ফুটে সংকটাপন্ন অবস্থা তৈরি হয়। কথিত ওই ডাক্তারের ভিজিডিং কার্ডে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার লেখার ব্যাপারে জানতে চাইলে, বিষয়টি তিনি ভুল করেছেন বলে দাবি করেন। জানতে চাইলে ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রশিদুল আলম বলেন, ইতোপূর্বে ওই ফিজিওথেরাপি এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারে গিয়ে ওই চিকিৎসককে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার লেখার বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

 

 

Lab Scan