জুনের রিসেপশনে চাঁদের হাট, রাজ-শুভশ্রী থেকে আবির-মিমি, হাজির সবাই…

লোকসমাজ ডেস্ক।। জুন জানিয়েছিলেন, বিয়ের আয়োজন বিশেষ নয়। ছোট করে, ঘরোয়া ভাবেই পালিত হবে বিয়ের অনুষ্ঠান। কিন্তু রিসেপশনের ছবি প্রকাশ্যে আসতেই দেখা গেল পুরো ছবিটাই উল্টো। রবিবার সন্ধেয়শহরের এক পাঁচতারা হোটেলে টলিপাড়ার চেনা মুখদের নিয়ে ধুমধাম করে হয়ে গেল জুন মাল্য এবং সৌরভ চট্টোপাধ্যায়ের রিসেপশন।
কথা ছিল, মা-দিদার ট্র্যাডিশনাল গয়নাতে সাজবেন জুন। সেই মতোই পরেছিলেন দুধে আলতা রঙের জমকালো শাড়ি। আর সঙ্গে ভারী গয়না। সৌরভও কম যান না। পরেছিলেন গলাবন্ধ কুর্তা। রিসেপশনে দেখা মিলল রাজ চক্রবর্তী এবং শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়ের। ব্ল্যাক শার্টে রাজ আর ক্রিম রঙের শাড়িতে শুভশ্রী যেন রাজযোটক। স্টাইল স্টেটমেন্টে কম যাননি যীশু সেনগুপ্ত এবং নীলাঞ্জনা সেনগুপ্তও। যীশু পরেছিলেন কালো রঙের ব্লেজার। আর কনট্রাস্ট করে নীলাঞ্জনাকে দেখা গিয়েছিল দুধ সাদা সালোয়ারে।
মিমি-আবির-অরিন্দমের সঙ্গে জুন
সস্ত্রীক অরিন্দম শীলকেও দেখা গেল রিসেপশনের দিন। শুধু রিসেপশনের দিনেই নয় ‘বেস্টফ্রেন্ড’-এর রেজিস্ট্রেশনের অনুষ্ঠানেও লাল পাঞ্জাবিতে দেখা গিয়েছিল অরিন্দমকে। হাজির ছিলেন মিমি চক্রবর্তীও। ট্র্যাডিশনাল পোশাকে সবার নজর কাড়লেন পরমব্রতর গার্লফ্রেন্ড ইকাও। পরমব্রতকেও দেখা গেল কুর্তা-পাজামায়। ছিলেন আবির চট্টোপাধ্যায়ও। অতএব বুঝতেই পারছেন আয়োজন নেহাত ‘সামান্য’ নয়।
এর আগে শনিবার মোমিনপুরের এক ওয়্যারহাউজে রেজিস্ট্রির অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছিল জুন-সৌরভের। সেই অনুষ্ঠানে পাত্র-পাত্রীর বাড়ির লোকরা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অরিন্দম শীল, ঊষা উত্থুপ এবং সৃঞ্জয় বসু। রেজিস্ট্রির অনুষ্ঠানের থিম কালার ছিল লাল। সেই মতোই জুন সেজেছিলেন লাল রঙের পোশাকে। খাওয়াদাওয়ার আয়োজনও ছিল বিস্তর।
জুনের বিয়েতে চাঁদের হাট
দীর্ঘ দিন ধরেই সম্পর্কে ছিলেন জুন-সৌরভ। সাংসারিক দায়-দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই এতদিন বিয়েটা করা হয়ে ওঠেনি ওই জুটির। তবে তাতে ভালবাসায় ছেদ পড়েনি এতটুকুও। অবশেষে এক হল চার হাত। নতুন জীবনে পথ চলা শুরু করলেন জুন-সৌরভ।

ভাগ