জিয়ার মাজার জিয়ারত করে প্রচারণায় ইশরাক-তাবিথ

লোকসমাজ ডেস্ক ॥ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করে চতুর্থ দিনের মতো প্রচারণায় নেমেছেন ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির দুই মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন ও তাবিথ আউয়াল। সোমবার সকাল ১১টায় কবর জিয়ারত করেন তারা। এসময় ইশরাক হোসেন বলেন, সন্ত্রাসীরা আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা চালিয়েছে। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে আমাদের সিনিয়র নেতাদের গাড়িবহরে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত করা হয়েছে। এ নির্বাচনেও এ ধরনের হামলা হচ্ছে। তবে আমরা এবার প্রতিপক্ষের সকল হামলা মোকাবেলা করতে প্রস্তুত আছি।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে উত্তর বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণের ইশরাক হোসেনকে নিয়ে প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করে চতুর্থ দিনের মতো প্রচারণা শুরু করেছি। ঢাকা মহানগরের এ নির্বাচনে আমরা প্রথম থেকে প্রত্যাশা করেছিলাম যদি জনগণের মতামতের প্রতিফলন ঘটাতে হয় তাহলে অবশ্যই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। কিন্তু সেটি এই সরকার, নির্বাচন কমিশন এবং প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।
তিনি বলেন, আমরা নির্বাচনী প্রচারণায় দেখেছি নির্বাচনের রঙিন পোস্টার লাগানো যাবে না কিন্তু আমরা দেখছি সরকার দলীয় প্রার্থীরা রঙ্গিন পোস্টার ব্যবহার করছে। তাই এখন পর্যন্ত লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হয়নি। ঢাকাবাসী যাতে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারে নিজের ভোট নিজে দিতে পারে সেই পরিবেশ তৈরি করতে আহ্বান জানান সাবেক এই মন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, জনগণ ব্যালটের মাধ্যমে ভোট দিতে চায়, আমরা ইভিএম মানি না। ইভিএমে ভোট চাই না। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিএনপির প্রচার অভিযানে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন ধরনের বাধা সৃষ্টি করছেন, প্রার্থীদেরকে হামলা করা হচ্ছে বিভিন্ন কাউন্সিলর বাড়িতে আক্রমণ করা হচ্ছে প্রচারের মাইক ছিনতাই করা হচ্ছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদীন ফারুক, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী সোহেল প্রমুখ।

ভাগ