জর্ডানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত নাজেরার মরদেহ এসে পৌঁছাল ঝিনাইদহে

0

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ ॥ জর্ডানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ঝিনাইদহের কান্তি আক্তার নাজেরার (৩৮) মরদেহ বৃহস্পতিবার তার গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। নাজেরা সদর উপজেলার রাধানগর গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের মেয়ে। বাবার মৃত্যুর পর মা হারিছন নেছার সাথে থাকতেন চাঁদপুর গ্রামে নানা বাড়িতে। দুবার বিয়ে হলেও যৌতুক দিতে না পারায় স্বামীর সংসারে টিকতে পারেননি নাজেরা। দুই সংসারের দুই কন্যা সন্তান হিরা ও মিলিকে নিয়ে অথৈ পানিতে পড়েন তিনি। জীবনযুদ্ধে পরের বাড়িতে কাজ করে ও অন্যের ক্ষেতে কৃষি কাজ করে সংসার চালাতে থাকেন তিনি। টাকা জোগাড় করে ২০১৩ সালে নাজেরা পাড়ি জমান সুদূর জর্ডানে। প্রথম দিকে অসুবিধা হলেও পরে ভালো একটি কোম্পানিতে কাজ জুটে যায় তার। মায়ের কাছে নিয়মিত টাকা পাঠিয়ে দুই বিঘা জমি কেনেন। বড় মেয়ে হিরাকে লেখাপড়া শিখিয়ে বিয়ে দিয়েছেন। ছোট মেয়ে মিলি নবম শ্রেণির ছাত্রী। কিন্তু সুখ যেন অধরাই থেকে গেল নাজেরার কপালে। গত ২০ সেপ্টেম্বর জর্ডানের এক ব্যস্ততম এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন নাজেরা। বৃহস্পতিবার সকালে তার লাশ ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মামা বাড়ি চাঁদপুর গ্রামে পৌঁছালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এতিম দুই মেয়ে হিরা ও মিলি কান্নায় ভেঙে পড়ে।

Lab Scan