ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করতে হবে : রিজভী

‘ছাত্রলীগ অসভ্যতা, বর্বরতা ও নৃশংসতার চূড়ান্ত সীমা অতিক্রম করেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ‘দেশবাসীর দাবি ছাত্রলীগকে এখনই নিষিদ্ধ করতে হবে।’ রোববার (২০ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নেতাদের ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দেয়া বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।
রিজভী বলেন, ‘ছাত্রদলের ওপর বিনা উস্কানিতে বর্বর কায়দায় অতর্কিত হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসী ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ। হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন ছাত্রদল নেতা মামুন খান, শাহজাহান শাওন, তারেক হাসান মামুন, নাইম হাসানসহ অনেকে।’ বিএনপির সহ দফতর সম্পাক মুহাম্মদ মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে রিজভী আরও বলেন, ‘ছাত্রলীগ অসভ্যতা, বর্বরতা ও নৃশংসতার চূড়ান্ত সীমা অতিক্রম করেছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে ছাত্রলীগকে অপকর্মের লাইসেন্স দিয়ে রেখেছে। ফলে খুন, ধর্ষণ, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, অস্ত্রবাজি, মাদকসহ এমন কোনো অপকর্ম নেই যা তারা করছে না। প্রতিটি ক্যাম্পাসকে ভীতি ও সন্ত্রাসের রাজত্ব পরিণত করেছে। সরকার কোনোটির বিচার তো করেইনি উল্টো বিভিন্ন সময় খুনি লম্পটদের পুরস্কৃত করেছে। ফলে ছাত্রলীগ আজ দানবীয় রূপ ধারণ করেছে।’ তিনি বলেন, ‘ছাত্র সংগঠনের কোনো বৈশিষ্ট্যই ছাত্রলীগে বিদ্যমান নেই। বরং দেশবাসীর কাছে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের প্রতিচ্ছবি ছাত্রলীগ। সুতরাং আগামীর ভবিষ্যৎ লাখো শিক্ষার্থীর জান-মাল রক্ষা এবং শিক্ষাঙ্গনে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে সন্ত্রাসী ও জঙ্গি সংগঠন ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করতে হবে।’
রিজভী বলেন, ‘ছাত্রসমাজ অনন্তকাল ধৈর্য ধরবে না। যদি শিক্ষাঙ্গনে ছাত্রলীগের সন্ত্রাস অব্যাহত থাকে তাহলে ছাত্রসমাজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজপথে নামতে বাধ্য হবে। শুধু ছাত্রসমাজ নয় ছাত্রলীগের ধারাবাহিক নৃশংসতায় দেশের প্রতিটি মানুষ আজ ক্ষুদ্ধ। এ অবস্থায় সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে ছাত্রসমাজকে আর নিবারণ করা যাবে না। তাই শুধু ছাত্রসমাজ নয় বরং গোটা দেশবাসীর দাবি এখনই ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করতে হবে। অন্যথায় কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে তার দায় সরকার ও প্রশাসনকে বহন করতে হবে।’ তিনি অবিলম্বে ছাত্রদল নেতাদের ওপর হামলাকারী ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। হামলায় গুরুতর আহত ছাত্রদল নেতৃবৃন্দের আশু সুস্থতা কামনা করেন।

ভাগ