চৌগাছায় শিলা বৃষ্টিতে উঠতি ফসল ও পানের ব্যাপক ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার, চৌগাছা (যশোর) ॥ যশোরের চৌগাছায় শনিবার সন্ধ্যায় হঠাৎ শিলা-বৃষ্টিতে উঠতি ফসল ও পানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। সন্ধ্যায় শিলা বৃষ্টি শুরু হয়ে তা প্রায় আধাঘন্টা স্থায়ী হয়। উপজেলার ফুলসারা, পাশাপোল ও ধুলিয়ানী ইউনিয়নে ফসলের বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে জানান কৃষকরা।
উপজেলার ধূলিয়ানী গ্রামের চাঁদের আলী শেখের ছেলে পটল ও পান চাষি রুহুল আমিন জানান, চলতি মৌসুমে তিনি ১৬ শতক জমিতে পটল ও ১০ শতাক জমিতে পান চাষ করেন। ইতোমধ্যে জমি থেকে তিনি ফসল বিক্রি শুরু করেন। কিন্তু শনিবার রাতের শিলা-বৃষ্টিতে তার ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়ে গেছে। শিলার আঘাতে মাচায় ধরে থাকা পটল ফেটে গেছে, পানের পাতাগুলো ছিঁড়ে মাটিতে পড়ে গেছে। এ ছাড়া বরজের অধিকাংশ পানের পাতা শিলার আঘাতে ছিদ্র হয়ে গেছে। একই গ্রামের কবির হোসেন বলেন, তিনি প্রায় ১ বিঘা জমিতে শশা চাষ করেন। কিন্তু আকস্মিক শিলায় তার শশার চরম ক্ষতি হয়ে গেছে। উপজেলার বড়খানপুরের ভুট্টা চাষি জিয়াউর রহমান বলেন, তিনি ৬ বিঘা জমিতে এ বছর ভুট্টা চাষ করেন। শিলার আঘাতে ভুট্টার বেশ ক্ষতি হয়েছে। এদিকে ফুলসারা ইউনিয়নের কোটালীপুর, সৈয়দপুর, আফরা, সলুয়া, পাশাপোল ইউনিয়নের রানায়ালী, বাড়িয়ালী, দশপাকিয়া, পাশাপোল, ধুলিয়ানী ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রামের মাঠের পর মাঠ চাষ করা পান, পটল, শশা, ভুট্টা, সারোকচু, পেঁয়াজ, রসুন, কলা, মৌসুমি ফল আম, খাড়াসহ উঠতি ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রইচ উদ্দিন বলেন, হঠাৎ শিলা বৃষ্টির কারণে উঠতি ফসলের কিছুটা ক্ষতি হয়েছে। তবে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা নিরুপণে কিছুটা সময় লাগবে। শিলার কারণে কৃষক যাতে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন না হয় তার জন্য কৃষি অফিস কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি জানান।

ভাগ