চুয়াডাঙ্গায় টিসিবির পণ্য বিক্রি বন্ধ

0

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা॥ ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য বিক্রি কার্যক্রমে ভাটা পড়েছে চুয়াডাঙ্গায়। পণ্য সংকটে বুধবার ইউনিয়ন পর্যায়ে বন্ধ হয়ে গেছে এই কার্যক্রম। এদিন সদর উপজেলার পদ্মবিলা, তিতুহদ ও বেগমপুর ইউনিয়নে বিতরণের কথা থাকলেও গুদামে পণ্য না থাকায় এ কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। এদিকে বৃহস্পতিবার পৌরসভা পর্যায়েও এই কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার ৭৪ হাজার ৫৫৬ পরিবারকে টিসিবির খাদ্যপণ্য দেওয়া শুরু হয় গত ২০ মার্চ থেকে। ওইদিন প্রথম দফায় ৬ কেজি এবং দ্বিতীয় দফায় ৮ কেজি মিলিয়ে মোট ১৪ কেজি খাদ্যপণ্য দেওয়া হয়। এসব পণ্যের মধ্যে রয়েছে দুই কেজি সয়াবিন তেল, দুই কেজি মসুর ডাল ও দুই কেজি চিনি। দ্বিতীয় দফায় দুই কেজি ছোলাও দেওয়া হবে। টিসিবির এ কার্যক্রমে তেল ১১০ টাকা, ডাল ৬৫ টাকা এবং চিনি ৫৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হবে। ইতোমধ্যে টিসিবির পণ্য দেওয়ার জন্য অসচ্ছল পরিবারের তালিকা তৈরির কাজ শেষে আনুমানিক ১২ হাজার জনকে খাদ্যপণ্য দেওয়া হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, টিসিবি থেকে আসা খাদ্যপণ্য চুয়াডাঙ্গার খাদ্যগুদামে সংরক্ষণে রাখা হয়। সেখান থেকে ট্রাকযোগে নির্ধারিত স্থানে পৌঁছানো হয়। গুদামের ধারণক্ষমতা কম হওয়ায় তুলনামূলক কম পরিমাণে পণ্য নিয়ে আসা হয়। বুধবার থেকে ওই গুদামে খাদ্যপণ্য কম থাকায় হাতেগোনা কয়েকটি স্থান ছাড়া সব স্থানে পণ্য বিক্রি বন্ধ রাখা হয়। তবে বন্ধ থাকা এসব স্থানে আবার কবে নাগাদ বিক্রি শুরু হবে তা নিয়ে স্পষ্ট ধারণা দিতে পারেননি তিনি। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীম ভূঁইয়া জানান, খাদ্য সংকটের কারণে সাময়িকভাবে কয়েকটি ইউনিয়নে বন্ধ রাখা হয়েছে টিসিবির কার্যক্রম। বৃহস্পতিবারও ইউনিয়ন এবং পৌরসভা পর্যায়ে বন্ধ থাকবে এ কার্যক্রম। খাদ্যপণ্য হাতে পেলেই ওইসব স্থানে আবারও বিক্রি কার্যক্রম শুরু হবে।

Lab Scan