চুয়াডাঙ্গায় ঈগল প্রতীকের কর্মীদের ওপর নৌকার সমর্থকদের হামলা, আটক ৫

0

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা ॥ চুয়াডাঙ্গায় ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী দিলীপ কুমার আগরওয়ালার কর্মীদের ওপর আক্রমণ করেছে নৌকা প্রতীকের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে। আক্রমণে প্রত্যক্ষ মদদদাতা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান মানিকসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাতে।
চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় রুজু হওয়া মামলার বাদী ও প্রত্যক্ষদর্শী অ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক জানান, শনিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী দিলীপ কুমার আগরওয়ালা সদর উপজেলার শংকরচন্দ্র ইউনিয়নের নতুন ভান্ডারদহ গ্রামে তার সমর্থিত নেতাকর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। এ সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে ঈগল প্রতীকের প্রচারণায় বাঁধা সৃষ্টি করে প্রচারকাজে নিয়োজিত নেতাকর্মীদের আক্রমণ করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান চুয়াডাঙ্গা জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক ড.কিসিঞ্জার চাকমা ও পুলিশ সুপার আর.এম.ফয়জুর রহমান এবং সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাতেমা-তুজ-জোহরা।
প্রচারকাজে বাধা সৃষ্টিকারী নৌকা প্রতীকের সমর্থক কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান মানিক (৪০), একই উপজেলার নতুন ভান্ডারদহ গ্রামের মরহুম খয়ের উদ্দিনের ছেলে আব্দুল্লাহ আল-ফারুক (৪৫), ওই গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে সুমন হোসেন (২১), একই উপজেলার যুগীরহুদা গ্রামের সোলায়মান আলীর ছেলে হাফিজুর রহমান (৪৫) ও একই উপজেলার ফুলবাড়ী গ্রামের আছাদুলের ছেলে জেহের আলীকে (২২) পুলিশ আটক করে সদর থানা হেফাজতে নেয়। এরপর এজাহারে উল্লিখিত ২১ জনসহ অজ্ঞাতনামা ১০০ থেকে জনকে অভিযুক্ত করে রোববার চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় মামলা হয়।

Lab Scan