চীনা অনুপ্রবেশের প্রতিবাদে আন্তর্জাতিক সমর্থন চায় তাইওয়ান

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করবে তাইওয়ান। একই সঙ্গে সমমনা গণতান্ত্রিক দেশগুলোর সঙ্গে কাজ করবে। আকাশ প্রতিরক্ষা জোনে চীনের অনুপ্রবেশের পর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সমর্থন চাইছে দেশটি। আজ বৃহস্পতিবার ফরাসি ও অস্ট্রেলিয়ান সিনিয়র ব্যক্তিদের সামনে এসব কথা বলেছেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। গত শুক্রবার থেকে টানা চারদিন চীনের বিমান বাহিনীর যুদ্ধবিমান দেশটির আকাশ প্রতিরক্ষা জোনে অনুপ্রবেশ করে। এরপর ফরাসি চারজন সিনেটর ও অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবট তাইওয়ান সফরে আসেন। চীনের ওই কর্মকা-ে ওয়াশিংটনে ও তাদের মিত্রদের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দেয়। চীনের ক্রমাগত সামরিক ও রাজনৈতিক চাপের মুখে গণতান্ত্রিকভাবে শাসিত তাইওয়ান অন্য গণতান্ত্রিক দেশগুলোর কাছে সমর্থন প্রত্যাশা করেছে। বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের কাছে এই সমর্থন বেশি করে প্রত্যাশা করে দেশটি। তাইওয়ানকে নিজেদের ভূখ- বলে দাবি করে চীন। কিন্তু তাইওয়ানের দাবি, তারা স্বাধীন, সার্বভৌম একটি দেশ। সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যালেন রিচার্ডের নেতৃত্বে তাইওয়ান সফরে আসা ফরাসি সিনেটর ও অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবটের সঙ্গে প্রেসিডেন্টের অফিসে বক্তব্য রাখেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েন। তাইওয়ান প্রণালিতে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ফ্রান্সের উদ্বেগ প্রকাশ করার জন্য ধন্যবাদ জানান সাই ইং-ওয়েন। তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সদস্যদের মতো আমরা আমাদের দায়িত্ব অব্যাহতভাবে পূরণ করে যাবো। ফ্রান্সের পাশাপাশি আমরা বিশ্বে আমাদের কন্ট্রিবিউশন অব্যাহত রাখবো।

Lab Scan