চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে যশোর থেকে সরাসরি আকাশপথের উদ্বোধন ইউএস বাংলার

0

স্টাফ রিপোর্টার॥ যশোর থেকে কলকাতা রুটের বিমান চলাচলের দাবি বেসরকারি বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলীর কাছে জানালেন যশোরের দুই সংসদ সদস্যসহ সুশীল সমাজ। গতকাল যশোর বিমানবন্দরে যশোর থেকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে সরাসরি আকাশপথে চলাচলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ বিষয়ের উপর গুরুত্ব আরোপ করে তা অনুধাবনের অনুরোধ জানান বক্তারা। প্রতিমন্ত্রী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। আকাশ পথে যশোর থেকে সরাসরি চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে যাতায়াত এই প্রথম। যা শুরু হল বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার মাধ্যমে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে। সকাল ১০টার দিকে যশোর বিমানবন্দরের সামনে এ উদ্যোগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রধান অথিথির বক্তব্যে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলম বলেন, ঢাকার বাইরে বেশ কয়েকটি বিমান বন্দর আন্তর্জাতিকে উন্নীত করা হয়েছে। সর্বশেষ কক্সবাজার বিমান বন্দর আন্তর্জাতিক উন্নীত করা হয়েছে। যশোরকেও আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে উন্নীতকরণ প্রক্রিয়াধীন। তারই অংশ হিসেবে আধুনিক টার্মিনাল নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সুন্দরবনকে ঘিরে পর্যটন খাত বিকাশে কাজ করছে সরকার। সুন্দরবন কেবল দেশের মধ্যে নয় সারাবিশে^ গৌরবময় স্থান। বিদেশি এভিয়েশন শিপগুলো পর্যটক নিয়ে সন্দুরবনে আসতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। সে লক্ষ্যে ১৫/২০টি স্পটে ইকোট্যুরিজম চালু করার চিন্তা করতে যাচ্ছে সরকার। স্পটগুলো তৈরির সময় সুন্দরবনের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য যাতে নষ্ট না হয় সেটিও বিবেচনায় নিয়ে কাজ করছে সরকার। এজন্য বুয়েটকে দিয়ে একটি সার্ভেও করানো হয়েছে। নতুন নতুন স্পষ্ট চিহ্নিত করা হয়েছে। এইসব নতুন স্পট ঘিরে বিদেশি পর্যটককের আকৃষ্ট করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ব্রিটিশ ভারতের প্রথম কালেক্টরেট যশোরে। এই জেলার ঐতিহাসিক গুরুত্ব রয়েছে। যশোরের ফুল, সবজি বিখ্যাত। উৎপাদিত ফুল সবজির ন্যায্য মূল্য যাতে কৃষক পায়, দেশের বাইরে সহজে পাঠানো যায়, সেই ব্যবস্থা করা হবে। কাউকে পিছনে ফেলে নয়, সবাইকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি যশোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দীন, যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিন ও ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার তাদের বক্তব্যে যশোর-কলকাতা ফ্লাইট চালুর দাবি জানান। একই সাথে তারা পর্যটনের খাত হিসেবে সুন্দরবনকে আরো গুরুত্ব দেয়ার তাগিদ দেন। সংসদ সদস্যরা তাদের বক্তব্যে বলেন, প্রতিদিন ৮/১০ হাজার যাত্রী বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে যাতায়াত করেন। স্থল পথে তাদের নানা বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। ওই যাত্রীদের সহজ ভ্রমণের স্বার্থে যশোর-কলকাতা বিমান কী করে চালু করা যায় তা ভেবে দেখার জন্য প্রতিমন্ত্রীকে অনুরোধ জানাচ্ছি যে। তারা বলেন, পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে কক্সবাজারকে শুধু গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে, সুন্দরবনকে কেন নয়। সুন্দরবনকে যদি আমরা সাজাই তবে সুন্দরবনও আকর্ষণীয় জায়গা হবে। সে ক্ষেত্রে যশোরে পর্যটনকে কেন্দ্র করে ৮/১০টা ফ্লাইট চালু হবে। বক্তব্যে সংসদ সদস্য অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল ডা. নাসির উদ্দিন জানান, এর আগে আমরা যশোরের সংসদ সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসেছিলাম। তখন আমরা বলেছিলাম যশোর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক করার। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন ও ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন। উদ্বোধনী দিনে গতকাল যশোর-চট্টগ্রাম ফ্লাইট চালু হয়েছে। আজ ১ অক্টোবর যশোর-কক্সবাজার ফøাইট চালু হবে। ইউএস বাংলার মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো.কামরুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে তিনদিন যশোর থেকে চট্টগ্রামে ফ্লাইট পরিচালনা করবে। প্রতি রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার যশোর থেকে সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করবে। একই দিন বিকাল ৫টা ১০ মিনিটে চট্টগ্রামের হযরত শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে যশোরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে। সকল প্রকার ট্যাক্স ও সারচার্জসহ যশোর থেকে চট্টগ্রামে ওয়ানওয়ের নূন্যতম ৬ হাজার টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ১২ হাজার টাকা। এছাড়া যশোর থেকে কক্সবাজারে ওয়ানওয়ের নূন্যতম ভাড় ৬ হাজার ৫০০ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ১৩ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

Lab Scan