গরমে পেঁয়াজ খেলে কী হয় জানেন?

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ দৈনন্দিনের বাহারি খাবার রান্নায় পেঁয়াজ না হলে কী চলে? আবার সালাদ কিংবা ভর্তায় কাঁচা পেঁয়াজ দিয়ে না মাখালে সেসবের স্বাদও বাড়ে না। প্রতিদিনই খাবারের সঙ্গে কিংবা রান্না পেঁয়াজ খান কমবেশি সবাই। তবে জানেন কি, পেঁয়াজ খাওয়ার মাধ্যমে আপনি শরীরের কতখানি উপকার করছেন।
বিশেষ করে গরমে কাঁচা পেঁয়াজ খেলে আপনার শরীরে মিলবে অনেক উপকার। এপ্রিল মাসের গরমেই অতীষ্ট হয়ে উঠছে সবাই। প্রচণ্ড গরমে হিট স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। তবে জানেন কি, কাঁচা পেঁয়াজ হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেকটাই কমিয়ে দিতে পারে।
গরমে তাপের কারণে বা শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে অনেক সময় নাক দিয়েও রক্ত পড়তে দেখা যায়। এ সমস্যা প্রতিরোধেও কাজ করে কাঁচা পেঁয়াজ।
গরমে খাদ্যতালিকায় পেঁয়াজ রাখলে বিভিন্ন সংক্রমণ ও রোগ থেকে দূরে থাকতে পারবেন। পুষ্টিতে পরিপূর্ণ পেঁয়াজ ত্বকের জন্যও ভালো। আবার হজমশক্তি বাড়াতেও সাজায্য করে।
পেঁয়াজে তাকা সিস্টিন অ্যান্টি হিস্টামিন গরমে শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন কাঁচা পেঁয়াজ খেলে এতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটাই বাড়াবে।
তাই গরমে মৌসুমী জ্বর-ঠান্ডা থেকে মুক্তি পেতে অবশ্যই পাতে রাখুন কাঁচা পেঁয়াজ। আবার নাক দিয়ে অতিরিক্ত পানি পড়লে কিংবা মাথাব্যথায় ভুগলে এক টুকরো কাঁচা পেঁয়াজ একটি কাপড়ে মুড়িয়ে নাকের কাছে ধরে ঘ্রাণ নিন। দেখেবেন সুফল মিলবে দ্রুত।
যাদের হাঁপানির সমস্যা আছে ধূলা-বালি, ময়লা, গরমের কারণে তাদের অবস্থা আরও খারাপ হয়। এক্ষেত্রেও অ্যাজমার ঝুঁকি কমাতে প্রতিদিন কাঁচা পেঁয়াজ খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।
পেঁয়াজে থাকে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। যা প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে। একইসেই সঙ্গে পেঁয়াজে থাকা ভিটামিন সি ও সালফারের কারণে যে কোনো ব্যাকেটিয়াল, ভাইরাল ইনফেকশনও কমাতে পারে।
ফ্লাভনয়েডের ফর্মে থাকা থিওসালফিনেট, অ্যান্থোসায়ানিন অ্যাস্থমার মতো অ্যালার্জি সারিয়ে তোলে। একটি সমীক্ষা অনুসারে, পেঁয়াজে ৫টিরও বেশি বিভিন্ন ধরনের ফ্ল্যাভোনয়েড অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে, যা কোষ তৈরি ও প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে।
পেঁয়াজে ফোলেট বি ৯ ও পাইরিডক্সিন বি ৬ এর পাশাপাশি ট্রেস খনিজগুলোতেও সমৃদ্ধ। এগুলো বিপাকক্রিয়া, লাল রক্ত কোষের উৎপাদন ও স্নায়ু কার্যক্রমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
গরমে রোদের আলোয় অনেকের ত্বকেই সানবার্ন দেখা দেয়। সেক্ষেত্রে পেঁয়াজ রসই ত্বকের কালচে তাগ তুলতে সাহায্য করবে।
চিকিত্সকদের মতে, গরমে রোজ অন্তত ১০০-১৫০ গ্রাম পেঁয়াজ খাওয়া উচিত। পেঁয়াজের রস, সালাদের সঙ্গে পেঁয়াজ কুচি কিংবা রান্না পেঁয়াজ ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি তা গ্রহণ করতে পারেন।
সূত্র: এনডিটিভি

Lab Scan