খুলনা ওয়াসার পানির মূল্যবৃদ্ধি বাতিল করার দাবি বিএনপির

0

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা ॥ খুলনা মহানগর বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেছেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির চাপ সামাল দিতেই মানুষ যখন দিশাহারা ঠিক তখনই মধ্যবিত্তের টানাপড়েনের সংসারে নতুন দুঃসংবাদ নিয়ে এসেছে খুলনা ওয়াসা। পানির মূল্যবৃদ্ধিকে অযৌক্তিক ও গণবিরোধী উল্লেখ করে তারা বলেন, নিরবচ্ছিন্নভাবে সুপেয় ও নিরাপদ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করা খুলনা ওয়াসার নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, ওয়াসা সেটি করতে ব্যর্থ হয়েছে। অযৌক্তিকভাবে বারবার পানির মূল্যবৃদ্ধি তাদের ধারাবাহিক কর্মকা-ে পরিণত হয়েছে। তারা এই অযৌক্তিক পানির মূল্যবৃদ্ধি বাতিলের দাবি জানান।
শনিবার প্রদত্ত বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, পানি সরবরাহের দায়িত্বে থাকা এই সংস্থা গ্রাহক পর্যায়ে দাম বাড়িয়েছে সর্বোচ্চ ২৮ শতাংশ যাহা আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। পরিবর্তিত মূল্য অনুযায়ী, আবাসিক গ্রাহকদের প্রতি ইউনিট (এক হাজার লিটার) পানি ব্যবহারের জন্য দিতে হবে ৮ টাকা ৯৮ পয়সা। আর বাণিজ্যিক গ্রাহককে দিতে হবে ১৪ টাকা। এর সঙ্গে আছে সার্ভিজ চার্জ, ডিমান্ড চার্জ ও ভ্যাট। সর্বশেষ মূল্য অনুযায়ী আবাসিকে পানির দর ছিল ৬ টাকা ৯১ পয়সা এবং বাণিজ্যিক দর ছিল প্রতি ইউনিট ১০ টাকা। সেই হিসাবে আবাসিকে পানির দর বেড়েছে ২৩ দশমিক ৬ শতাংশ এবং বাণিজ্যিক গ্রাহকদের জন্য দাম বেড়েছে ২৮ দশমিক ৫৮ শতাংশ। বিবৃতিদাতারা হলেন, মহানগর বিএনপির আহবায়ক শফিকুল আলম মনা, সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মো. তারিকুল ইসলাম জহির, যুগ্ম আহবায়ক কাজী মো. রাশেদ, স ম আব্দুর রহমান, সৈয়দা রেহানা ঈসা প্রমুখ।

 

 

Lab Scan