খুলনায় স্বাধীন প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজে অগ্নিকাণ্ডে টিনশেড ঘর ভস্মীভূত

ফুলবাড়ীগেট (খুলনা) সংবাদদাতা ॥ খুলনার খানজাহান আলী থানাধীন নদীর ঘাটে স্বাধীন প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজের গোডাউনে অগ্নিকান্ডে টিনশেডের চারটি ঘর ভস্মীভূত হয়েছে। জানা গেছে, নদীর ঘাটে অবস্থিত স্বাধীন প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজের গোডাউনে শুক্রবার রাত সোয়া ১টার দিকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। গোডাউনের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের রাবারের ওয়াসার থাকায় মুহূর্তের মধ্যে আগুন টিনশেডের চারটি রুম ভস্মীভূত হয়ে যায়। অগ্নিকান্ডের ঘটনার খবর পেয়ে খানজাহান আলী থানা ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এবং এলাকাবাসীর সহযোগিতায় দুই ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এর আগেই টিনের চালের বিল্ডিয়ের চারটি কক্ষ দেয়াল, জানালা-দরোজা, টিনসহ রুমের মধ্যে থাকা রাবারের কয়েক টন ওয়াসার, ওয়াসার তৈরি মেশিন, ২০টি মটর, উৎপাদন করা কয়েল(হিটার) ৪০টি, ইলেক্ট্রিক যস্ত্রপাতিসহ প্রায় ৭০/৮০ লাখ টাকার মালামাল আগুনে পুড়ে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী অঞ্জনা বেগম জানান, রাত সোয়া ১টার দিকে তিনি গোডাউনের দক্ষিণ দিকে অংশের একটি রুমে দাউদাউ করে আগুন জ্বলতে দেখে চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন ছু্েট এসে ফায়াস সার্ভিসকে খবর দেয়। যেখান থেকে আগুনের সূত্রপাত সেখানে বিদ্যুতের কোন লাইন এমনকি আগুন লাগার কোন উপকরণ ছিলো না। স্থানীয়রা জানান, আগুন লাগার কোন সূত্রপাত তারা খুঁজে পায়নি, তাদের ধারনা পরিকল্পিতভাবে কে বা কারা আগুন লাগিয়ে দিয়ে থাকতে পারে।
স্বাধীন প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজের গোডাউনের পার্টনার মো. রহমাতুল্লাহ জানান, ফ্যাক্টরিতে দু বছর রাবারের ওয়াসার উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে কোম্পানির ঢাকার ফ্যাক্টরি থেকে মালামাল এনে এই গোডাউনে রেখে তা এখান থেকে প্যাকেটজাত করে বিভিন্ন স্থানে সাপ্ল্ইা দেওয়া হতো। তিনি আরও জানান, গোডাউনের মধ্যে প্রায় ১৮/২০ টন মাল ছিলো, যার আনুমানিক মূল্য ৫০/৬০ লাখ টাকা। এছাড়াও গোডাউনের বিভিন্ন মালামালসহ প্রায় ৭০/৮০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। তিনি জানান, কে বা কারা রাতে গোডাউনে আগুন লাগিয়ে থাকতে পারে। এ ঘটনায় খানজাহান আলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ভাগ