খুলনায় জ্বর-সর্দি-কাশিতে বৃদ্ধার মৃত্যু

খুলনা ব্যুরো॥ খুলনায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ জ্বর, সর্দি কাশিতে সালেহা বেগম নামে ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।মঙ্গলবার সকাল ৬টার দিকে রূপসা উপজেলার নৈহাটী ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। তিনি ওই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী। এলাকাবাসী জানায়, সালেহা বেগম ১০-১২দিন আগে তার ছেলের ঢাকার বাসায় জ্বরসহ সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হন। ওই অবস্থায় তিনি তার নাতি রাসেলকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফেরেন। তবে, তার অসুস্থতার কথা গ্রামবাসী জানতে পারেনি।
রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা (প.প) কর্মকর্তা ডা. আনিসুর রহমান জানান, জ্বর, সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত ওই বৃদ্ধা এক সপ্তাহ আগে তার ২২ বছর বয়সী নাতি রাসেলকে সঙ্গে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে আসেন। তিনি তথ্য গোপন করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা নেন। মঙ্গলবার সকাল ৬টার দিকে তিনি বাড়িতে মারা যান। মৃত বৃদ্ধার নাতিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। রূপসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরিন আকতার জানান, যারা ওই নারীর সংস্পর্শে এসেছিলেন তাদের তালিকা তৈরির কাজ চলছে। তাদেরকে দ্রুত হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোসহ লকডাউনের কাজ চলছে। সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ জানান, মৃত বৃদ্ধা ও তার নাতির নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে করোনাভাইরাস আক্রান্ত কি না পরীা করা হবে। যতণ পর্যন্ত তাদের করোনার রিপোর্ট পাওয়া না যাবে ততণ পর্যন্ত প্রশাসনকে ওই এলাকা লকডাউন করে রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়া ওই নারীর সংস্পর্শে যারা এসেছে তাদের হোম কোয়ারেন্টিাইনে থাকতে বলা হয়েছে।

ভাগ