খালেদা জিয়ার জামিন বাধাগ্রস্ত করার প্রতিবাদে খুলনায় বিএনপির বিক্ষোভ

খুলনা ব্যুরো ॥ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির ফয়সালা রাজপথেই হবে। সে লক্ষ্যে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে প্রস্তত থাকার ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন খুলনা বিএনপির নেতারা।
প্রতিহিংসার বিচারে দু বছরেরও অধিক সময় কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ন্যায্য জামিন বাধাগ্রস্ত করার প্রতিবাদে খুলনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে দলের নেতারা এ আহ্বান জানান। কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় নগরীর কে ডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত হয় এ সমাবেশ।
সমাবেশে সভাপত্বি করেন জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. এস এম শফিকুল আলম মনা। সভায় বক্তব্য রাখেন মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, আমীর এজাজ খান, মীর কায়সেদ আলী, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মনিরুজ্জামন মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, স ম আব্দুর রহমান, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, খায়রুল ইসলাম জনি, ইউসুফ হারুন মজনু, সাজ্জাদ হোসেন তোতন, অ্যাড. তছলিমা খাতুন ছন্দা, মাহবুব হাসান পিয়ারু, অ্যাড. তৌহিদুর রহমান চৌধুরী তুষার, একরামুল হক হেলাল, শরিফুল ইসলাম বাবু প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন সাজ্জাদ আহসান পরাগ ও কামরান হাসান। সমাবেশের শুরুতে কুরআন তিলাওয়াত করেন মাওলানা আব্দুল মান্নান।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, গণতন্ত্র, বাক স্বাধীনতা, ভোটাধিকার এবং মৌলিক মানবাধিকার ফিরে পেতে খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো বিকল্প নেই। তিনি কারামুক্ত হলেই দেশ থেকে ফ্যাসিবাদী শাসন ব্যবস্থা দূর হবে। খুন, গুম, অপহরণ, মিথ্যা মামলায় হয়রানি, জুলুম নির্যাতন প্রতিটি অবিচারের বিচার এই বাংলার মাটিতেই হবে। মধ্যরাতের ভোটে ক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী লীগ ও তাদের দোসররা কেউ ছাড় পাবে না। বক্তারা মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানোর তীব্র নিন্দা জানান।
কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন শেখ মোশারফ হোসেন, শেখ জাহিদুল ইসলাম, রেহানা আক্তার, শাহজালাল বাবলু, চৌধুরী কওসার আলী, অ্যাড. শরিফুল ইসলাম জোয়াদ্দার জলি, আব্দুর রকিব মল্লিক, মাহবুব কায়সার, নজরুল ইসলাম বাবু, মোল্লা মোশারফ হোসেন মফিজ, কামরুজ্জামান টুকু, মেহেদী হাসান দীপু, মহিবুজ্জামান কচি, শাহিনুল ইসলাম পাখী, আজিজুল হাসান দুলু,অ্যাড. মাসুদ হোসেন রনি, সুলতান পিন্টু, অ্যাড. শহিদুল আলম, মুর্শিদুর রহমান লিটন, অ্যাড. গোলাম মাওলা, ইকবাল হোসেন খোকন, সাদিকুর রহমান সবুজ, মুজিবর রহমান, মো. শাহজাহান, এহতেশামুল হক শাওন, শেখ সাদী, জালু মিয়া, এনামুল কবির, সুলতান মাহমুদ, মুর্শিদ কামাল, কে এম হুমায়ুন কবির, অ্যাড. মশিউর রহমান নান্নু, হাসানুর রশিদ মিরাজ, আনিসুর রহমান,শামসুজ্জামান চঞ্চল, ফারুক হিল্টন, নাজমুস সাকির পিন্টু, কামরুল ইসলাম সিপার, নিয়াজ আহমেদ তুহিন, হাফেজ আবুল বাসার, কাজী মিজানুর রহমান, হাবিবুর রহমান হবি, মুজিবর রহমান ফয়েজ, খন্দকার ফারুক হোসেন, মশিউর রহমান যাদু, জসিমউদ্দিন লাবু, নাজিরউদ্দিন আহমেদ নান্নু, আবুল কালাম জিয়া প্রমুখ।

ভাগ