খাঁটি খেজুর গুড় তৈরির শপথ চৌগাছার গাছিদের

0

মুকুরুল ইসলাম মিন্টু, চৌগাছা (যশোর)॥ চৌগাছা উপজেলায় খাঁটি গুড় তৈরির পাশাপাশি রস ও গুড়ের ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য খেজুর গাছ কাটার সাথে নিয়োজিত গাছিদের নিয়ে মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা প্রশাসন ও গাছিদের উদ্যোগে পরিষদের হলরুমে মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখতে শপথ পাঠ করেন গাছিরা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইরুফা সুলতানার সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. এম মোস্তানিছুর রহমান। এসময় উপজেলার বেশ কিছু গাছি যারা দীর্ঘ দিন ধরে নানা প্রতিকুলতার মধ্যে এই পেশাকে আগলে রেখেছেন তারা নানা সুবিধা ও অসুবিধা তুলে ধরে বক্তব্য দেন। মতবিনিময়সভায় সিংহঝুলী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ মল্লিক, চৌগাছা সদর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, ধুলিয়ানী ইউপি চেয়ারম্যান এসএম মোমিনুর রহমান, উপসহকারী কৃষিকর্মকর্তা বিশ্বজিৎ রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের অন্তত চার শ গাছি উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময়সভায় নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতানা গাছিদের উদ্যেশে বলেন, এক সময় এ অঞ্চলে প্রচুর পরিমানে খেজুর গাছ ছিলো। সেই গাছ হতে সংগ্রহ হত রস। খেজুর গাছ আজ নানা কারণে বিলুপ্তির পথে। নতুন নতুন সড়কসহ পতিত জমিতে খেজুরের চারা রোপণ করার পাশাপাশি যে সব গাছ আছে তা যত্ন সহকারে বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করতে হবে। চলতি শীত মৌসুমে আগামী ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কে কত খেজুর গাছ কেটেছেন সেই সংখ্যা নিজের জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি করে তার পেছনে লিখে মোবাইল নম্বরসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদে পৌঁছে দেবেন। এটা দিয়ে যাচাই করে প্রতিটি ইউনিয়নের সর্বাধিক গাছ কাটা তিনজন গাছিকে পুরস্কৃত করা হবে।  মতবিনিময় শেষে গাছিদের উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চত্বরে শপথ পাঠ অনুষ্ঠিত হয়। গাছিদের মধ্য হতে তাদের মনোনীত একজন গাছি শপথ পাঠ করান। শপথে গাছিরা বলেন, আমরা খাঁটি গুড় তৈরি করতে এবং খেজুর রস ও গুড়ের ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখতে সর্বদা সচেষ্ট থাকব। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, নির্বাহী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

 

Lab Scan