ক্যারামে মুগ্ধ করল মাশরাফির ছেলে সাহেল

0

লোকসমাজ ডেস্ক॥ ছেলের শটে মুগ্ধ হয়ে বাবা মাশরাফি বিন মুর্তজার মুখ থেকে বেরিয়ে এলো ‘ওয়াও।’ মাশরাফি নামটি আসলেই মনে হবে ক্রিকেট মাঠ ও ২২ গজের কথাই বলা হচ্ছে। কিন্তু এবার তেমন কিছু হয়নি। মাশরাফির ছেলে সাহেল ক্যারামে মুগ্ধ করে বাবার প্রশংসাধ্বনি পেয়েছেন।
মাশরাফির ছোট ভাই মোরসালিন মুর্তজা নিজের ফেসবুকে ৫৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও দিয়েছেন। দেখা যায়, বোর্ডের প্রথম শটে গুটি ফেলেছিল সাহেল। এরপর লাল গুটিসহ মোট ছয়টি গুটি ফেলে। অষ্টম শটটি মিস করে। বোর্ড খেলায় মাশরাফির সঙ্গে ছিল সাহেল। মাশরাফি ছেলেকে শুরু থেকেই গাইড করছিলেন। সেভাবেই একের পর এক শট নিয়ে মুগ্ধ করে সাহেল। প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রাও তার খেলা মুগ্ধ হয়ে বোর্ড চাপড়েছেন।
লকডাউনে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন মাশরাফি। গৃহবন্দি হয়ে থাকা সময়টায় ছেলেকে নিয়ে প্রায়ই খেলাধুলায় মেতে উঠেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক। ক্যারাম খেলায় মাশরাফিও বেশ পটু। বন্ধুবান্ধবের কাছ থেকে জানা যায়, যখনই সময় পেয়েছেন ক্যারামে মেতে উঠেছেন তিনি। জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গেও ক্যারামে বেশ কয়েকবার লড়াই হয়েছে তার। তবে তাকে হারাতে পারেননি কেউ। ছেলে সাহেল মুর্তজাও বাবার দেখানো পথেই হাঁটছে।
গত বছরও মাশরাফি কোয়ারেন্টাইনে থাকার সময় ছেলেকে নিয়ে ক্যারাম খেলার ছবি পোস্ট করেছিলেন। ক্যাপশন দিয়েছিলেন, ‘দ্রুত শিখছে।’ বোঝাই যাচ্ছে, বাবা মতোই দ্রুত শেখার মানসিকতা নিয়ে বেড়ে উঠছে সাহেল। সেক্ষেত্রে, ভবিষ্যতে যে আরেকজন কুইক লার্নারকেই পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ, তাতে সন্দেহ নেই।
২০০৬ সালের ৭ সেপ্টেম্বর নিজ জেলা নড়াইলের মেয়ে সুমনা হক সুমিকে বিয়ে করেন মাশরাফি। পাঁচ বছর পর ২০১১ সালের ১৮ মার্চ তাদের ঘর আলো করে জন্ম নেয় হুমায়রা। আর সাহেলের জন্ম ২০১৪ সালের ৫ অক্টোবর। দারুণ ব্যাপার হলো মাশরাফি ও সাহেলের জন্মদিন একই দিনে।

Lab Scan