কালীগঞ্জে ভাঙা কাঠের সেতুতে দুর্ঘটনার আশঙ্কা

0

 

শিপলু জামান ,কালীগঞ্জ(ঝিনাইদহ )॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ বাজারে চিত্রা নদীর ওপর নির্মিয়মান ব্রিজের কাজ চলমান থাকায় শহরের জনতা মোড় থেকে একটি বাইপাস সড়ক কাঠের অস্থায়ী একটি সেতু হয়ে অপরপ্রান্ত হাসপাতাল সড়কের গিয়ে মিশেছে। ব্রিজটির নির্মাণকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মৃতপ্রায় চিত্রা নদীর উপর অত্যন্ত নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ছোট একটি কাঠের সেতু নির্মাণ করে দিয়েছে চলাচলের জন্যে। সেতুটির দুইপ্রান্তের সড়ক গর্ত ও অসমতল হওয়ায় চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। প্রায় ১৫ মাস ধরে ব্রিজের কাজ চললেও বাইপাস সড়ক ও সেতুর কারণে জনদুর্ভোগ কমেনি একটুও। বর্তমানে কাঠের সেতুটি সাত থেকে আট জায়গায় ভেঙে গেছে।

চিত্রা নদীর ওপর নির্মেয় ব্রিজটির কাজ ২০২২ সালের জুলাই মাসে শুরু হলেও এখনো শেষ হয়নি। যে কারণে মানুষ ব্যবহার অনুপযোগী কাঠের সেতুর ওপর দিয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছেন।

কালীগঞ্জ পৌর ব্যাবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. আসাদুজ্জামান বলেন,শুরু থেকেই অস্থায়ীভাবে নির্মিত এই সংযোগ সড়ক ও কাঠের সেতুটি যথাযথভাবে তৈরি না করায় জনগণকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। একটা দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হওয়ায় নির্মিত কাঠের সেতুটিও এখন ভাঙতে শুরু করেছে। ফলে যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।
চিত্রা নদীর ওপরে ব্রিজ নির্মাণকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ঢাকার কনসিক এন্ড বিল্ড লিমিটেডের সাইট পরিচালক আরিফ হোসেন জানান,নির্মাণ কাজ ৮০ শতাংশের বেশি সম্পন্ন হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। কাঠের সেতুটি আগে একবার সংস্কার করা হয়েছে। আবারো সংস্কারের প্রয়োজন হলে করা হবে।

 

 

Lab Scan