কালিগঞ্জে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

0

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ ও কালীগঞ্জ সংবাদদাতা॥ ঝিনাইদহের কালিগঞ্জে গালিগালাজের প্রতিবাদ করায় এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার রাতে কালিগঞ্জ পৌর এলাকাৃর ফয়লা মাস্টার পাড়া এলাকায়। নিহত মেহেদী হাসান (২৫) একই এলাকার সফর আলীর ছেলে। কয়েক দিন পরেই মেহেদী হাসানের কাজের উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার কথা ছিল। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে একই গ্রামের তোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে আকরাম হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
নিহত মেহেদী হাসানের মা সাবিহা বেগম অভিযোগ করেন, আকরাম হোসেন প্রতি রাতেই বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতো। এ ঘটনার প্রতিবাদ করে মেহেদী। শনিবার রাত ১২টার দিকে মেহেদী খাওয়া শেষ করে বসে ছিল। এ সময় একটি ফোন কল আসে। ফোন কল পেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় মেহেদী।
নিহতের স্ত্রী আঁখি বেগম অভিযোগ করেন, মধ্যরাতে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে প্রতিবেশী আকরাম ও তার ভাই সাদ্দাম হোসেন মেহেদীর সঙ্গে তর্কবিতর্কে লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে দুই ভাই মিলে ছুরিকাঘাত করে তার স্বামীকে হত্যা করে। তিনি আরও বলেন, তার স্বামীর ভিসা-পাসপোর্টসহ বিমানের টিকিট হয়ে গেছে। আর তিন দিন পরে তার স্বামীর কাজের জন্য মালয়েশিয়ায় যাওয়ার কথা। কিন্তু তারা তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।
কালীগঞ্জ থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, নিহত মেহেদী হাসান ও আকরাম দুই বন্ধু। কথাকাটাকাটির জের ধরে তাকে গলায় ছুরি ঢুকিয়ে হত্যা করা হয়। ঝিনাইদহ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান রাতেই জানান, তর্কবিতর্কের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ হত্যার মোটিভ ও ক্লু উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে। আসামিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Lab Scan