কলারোয়ায় দুপুরে বিয়ে সন্ধ্যায় আত্মহত্যা

0

কে এম আনিছুর রহমান,কলারোয়া( সাতক্ষীরা) ॥সাতক্ষীরার কলারোয়ায় উষা খাতুন (২০) নামের এক কনের দুপুরে বিয়ে হওয়ার পর সন্ধ্যায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। রোববার (১৮ জুন) সন্ধ্যায় উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত উষা খাতুন ওই গ্রামের আমির আলীর মেয়ে।
ঘটনার তদন্ত কর্মকর্তা কলারোয়া থানার উপপরিদর্শক অনীল মুখার্জি বলেন, রোববার দুপুরে উষা খাতুনের সাথে কলারোয়া পৌর সদরের ঝিকরা গ্রামের আব্দুল ওয়াহেদ আলীর ছেলে সুমনের বিয়ে হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে বাড়িতে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সুমন তার নব বিবাহিতা স্ত্রী উষাকে তার পিতার বাড়ি রেখে যান। সন্ধ্যায় উষা তার দাদির সঙ্গে সামান্য বিতর্কে জড়ান। এরপর নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। রাতেই মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আত্মহত্যার সঠিক কারণ তার স্বজনরা বলতে পারছেন না। তবে ধারণা করা হচ্ছে উষার মনের বিরুদ্ধে বিয়ে হওয়ায় তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ বিষয়ে তদন্ত চলমান রয়েছে। তদন্ত শেষে আরও তথ্য জানানো সম্ভব হবে।
এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। উভয় পরিবারের সম্মতিতে লাশ ময়না তদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে হস্তান্তর ও দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

Lab Scan