এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ হার বাংলাদেশের

0

লোকসমাজ ডেস্ক ॥ সৌম্য সরকারের ১৬৯ রানের উপর ভর করে ২৯১ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ। তবে ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে সেটা টপকাতে কোনো সমস্যাই হয়নি নিউজিল্যান্ডের। ৭ উইকেট ও ২২ বল বাকি রেখে দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতল কিউইরা। স্বাগতিকদের হয়ে ৮৯ রান করেন উইল ইয়ং আর হেনরি নিকোলসের ব্যাট থেকে আসে ৯৫ রান। এই জয়ে ৩ ম্যাচের সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করলো নিউজিল্যান্ড।
উইল ইয়ংয়ের পর সেঞ্চুরি হাতছাড়া করলেন নিকোলস ।শরীফুলের শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে মিডউইকেটে রিশাদের হাতে ধরা পড়েছেন তিনি। তার ব্যাট থেকে আসে ৯৫ রান। হেনরি নিকোলস হাসান মাহমুদের ওভারে টানা তিন চার মারার পর সিঙ্গেল নিয়ে তিনি গেলেন আরেক প্রান্তে। চতুর্থ বলে লিডিং-এজে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে আউট হন উইল ইয়াং। তার ব্যাট থেকে আসে ৮৯ রান। ১৭তম ওভারেই দলীয় রান ১০০ পূর্ণ করে নিউজিল্যান্ড। ৫১ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন উইল ইয়ং। এর আগের ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এসেছি দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি।
প্রথম ৫ বলে হজম করেন ১৫ রান, শেষ বলে বিধ্বংসী হয়ে ওঠা কিউই ব্যাটার রাচিনকে আউট করে কিছুটা পোষালেন হাসান মাহমুদ। মিড উইকেটে রাচিনের দুর্দান্ত ক্যাচ নিয়েছেন অভিষিক্ত রিশাদ হোসেন। ফেরার আগে ৩৩ বলে ৪৫ রান করেন রাচিন। ১ উইকেট হারিয়ে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ হয় ৭৬ রান।
প্রথম ম্যাচে প্রথম ওভারেই ২ উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। এবার দুই ওপেনার রাচিন রবীন্দ্র ও উইল ইয়াং শুরু থেকেই টাইগার বোলারদের দেখেশুনে খেলেছেন। ৪ ওভারে বিনা উইকেটে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ করে ১০ রান, যার ৬ রান এসেছে চতুর্থ ওভারে। এর আগে শেষ ওভারের প্রথম বলে সৌম্য আউট হওয়ার পর ৪ বলের ব্যবধানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। তবে তার আগে বাংলাদেশের জার্সিতে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ওয়ানডে ইনিংস আসে তার ব্যাট থেকে। ১৫১ বলে ২২ চার ও ২ ছক্কায় ১৬৯ রান করেন সৌম্য। ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে এটা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের স্কোর। বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে ২৯১ রানে।
নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ২০১৫ বিশ্বকাপে ১২৮ রান করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। কিউইদের মাটিতে ওদের বিপক্ষে এতদিন এটাই ছিল কোনো বাংলাদেশির সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। ৭ বছর পর সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন সৌম্য সরকার।
৫ বছর পর আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে সৌম্যের ব্যাটে সেঞ্চুরির দেখা মিললো। এর আগে সর্বশেষ ২০১৮ সালের অক্টোবরে তিন অঙ্কের ইনিংস খেলেন তিনি। ক্যারিয়ারের তৃতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি এসেছে ১১৫ বলে।
৮০ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর সৌম্য ও মুশফিক মিলে প্রতিরোধ গড়েন। দুজনের জুটিতে চাপ কাটিয়ে বড় সংগ্রহের আশা দেখছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ৪৫ রান করা মুশফিক ফেরায় ভাঙলো তাদের ৯১ রানের জুটি। ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৭১ রান।

 

Lab Scan