উদ্ধার করলো পিবিআই বিদ্যালয়ের টিসির ভয়ে বাড়ি থেকে পালায় দাউদ পাবলিকের ছাত্র রাহুল

0

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোর দাউদ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের নিখোঁজ শিক্ষার্থী ইমরুল হাসান রাহুলকে উদ্ধার করেছে পিবিআই কর্মকর্তারা। খুলনার ফুলতলা উপজেলার দামোদর গ্রামের জনৈক নুর হোসেনের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআই যশোরের পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন। গত ১৪ নভেম্বর নবম শ্রেণির ছাত্র রাহুল স্কুলের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ ছিলো। এ ঘটনায় তার পিতা সদর উপজেলার চুড়ামনকাটির খিতিবদিয়া এলাকার বাসিন্দা খলিলুর রহমান যশোর কোতয়ালি থানায় একটি জিডি করেন।  পিবিআই যশোরের এসআই স্নেহাশিস দাশ জানান, রাহুল তার ক্লাশের মনিটর। গত ১৩ নভেম্বর ক্লাশে একজন ছাত্রীর কাছে মোবাইল ফোনসেট দেখতে পেয়ে সে সেটি জমা দিতে বলে। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে রাহুলের বিরুদ্ধে অধ্যক্ষের কাছে খারাপ ব্যবহারের অভিযোগ করে ওই ছাত্রী। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাহুলকে সকল ক্লাশ চলাকালে বাইরে দাঁড় করিয়ে রাখা হয় এবং টিসি দিয়ে দেয়া হবে বলে জানানো হয়েছিলো। এ কারণে ভয় পেয়ে ১৪ নভেম্বর নিজের বাইসাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে সে বিদ্যালয়ে না গিয়ে চলে যায় খুলনার ফুলতলা উপজেলার দামোদর গ্রামে। সেখানে নার্সারি মালিক নুর ইসলামের সাথে তার পরিচয় হয় এবং তার বাড়ি যশোরের বসুন্দিয়ায় বলে জানায়। নুর ইসলামকে সে একথা বলে যে, তার মা-বাবা কেউ নেই। চাচার কাছে সে থাকে। কিন্তু চাচার অত্যাচার সইতে না পেরে সে পালিয়ে এসেছে। রাহুলের কাছ থেকে এ কথা শুনে দয়াপরাবশত হয়ে তাকে আশ্রয় দিয়েছিলেন নুর ইসলাম। এ বিষয়ে রাহুলের পিতা খলিলুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি পুলিশের কাছ থেকে খবর পেয়েছেন বলে জানান। তিনি বলেন, আল্লাহর হাজার শোকরিয়া তিনি আমার কলিজার টুকরাকে আমার কাছে ফিরিয়ে দিয়েছেন।

Lab Scan