ইফতারে মিষ্টিমুখ শাহি জর্দায়

শাহি জর্দার নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে অনেকের। তবে বেশিরভাগ সময় শাহী জর্দা কিন্তু আমরা বিয়েবাড়িসহ বিভিন্ন জমকালো অনুষ্ঠানের দাওয়াতে খেয়ে থাকি। তবে আপনি চাইলে ইফতারে খেতে পারেন শাহী জর্দা। ঘরেই বানাতে পারেন সুস্বাদু এই শাহী জর্দা।
আসুন জেনে নেই কিভাবে তৈরি করবেন শাহি জর্দা-
উপকরণ
পোলাও চাল ২৫০ গ্রাম, চিনি ২৫০ গ্রাম, ঘি এক কাপ, মোরব্বা টুকরো করে কাটা আধা কাপ, কাজুবাদাম কুচি এক টেবিল চামচ, দুধের সর এক কাপ, গুটি মিষ্টি ১০/১৫টি, জর্দার রং আধা চা চামচ
কেওড়ার জল আধা চা চামচ।
তৈরি প্রণালি
একটি পাত্রে আধা কেজি পানিতে জর্দার রং দিয়ে চুলায় চাপিয়ে ফুটতে দিন। ফুটে এলে এতে চাল চাপিয়ে সেদ্ধ করুন। পুরো সেদ্ধ করবেন না । এবার একটি ঝাঁজরিতে সেদ্ধ ভাত ঝরিয়ে নিন। এবার একটি পাত্র চুলায় চাপিয়ে এতে ঘি দিয়ে হালকা গরম করুন। এবার চিনি দিয়ে নাড়তে হবে। চিনি গলে আঠালো হয়ে এলে এতে সেদ্ধ করা পোলাও চালের ভাত দিয়ে এর মধ্যে বাদাম ও মোরব্বা কুচি দিতে হবে। এভাবে চুলায় ১০/১৫ মিনিট পর্যন্ত নেড়ে রান্না করতে হবে। চিনির পানি শুকিয়ে এলে রান্না শেষ হবে। এর ওপর গুটি মিষ্টি ও দুধের সর ছড়িয়ে দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার শাহি জর্দা।
গুটি মিষ্টি আপনি চাইলে বাসায় নিজেই তৈরি করতে পারেন ।
বানাতে যা যা লাগবে
ময়দা/আটা তিন টেবিল চামচ, তেল এক চা চামচ, গুঁড়া দুধ এক কাপ, ডিম একটি, চিনি এক চা চামচ, চিনির সিরা, ভাজার জন্য তেল।
গুটি মিষ্টি বানানোর প্রণালি
প্রথমে ময়দা আর গুঁড়া দুধ একসঙ্গে মেশান। তার পর এতে একে একে তেল, ডিম, চিনি দিয়ে ভালোমতো ময়ান করুন। এভাবে তৈরি করুন। এবার ছোট ছোট গোল্লা করে মিষ্টি শেপ করে একটা প্লেটে রাখুন। চুলায় পাত্র চাপিয়ে এতে তেল দিয়ে গরম করুন ভাজার জন্য।
মানে রাখবেন, মিষ্টি অবশ্যই অল্প আঁচে ভাজবেন, না হলে কাঁচা থেকে যাবে। ভেতরে মিষ্টি ভাজাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এটা পুড়ে যাবে না, আবার সবটাই ভাজা হয়ে যাবে। অন্য একটা হাঁড়িতে এক কাপ চিনি আর দুই কাপ পানি দিয়ে সিরা তৈরি করে নিন। এখন ভাজা মিষ্টিগুলো তার মধ্যে ছেড়ে দিন। কিছুক্ষণ পর মিষ্টিগুলো উঠিয়ে অন্য একটা বাটিতে রাখুন।

ভাগ