ইউপি সদস্য উত্তম হত্যাকাণ্ড: অস্ত্র আইনের মামলায় কথিত তিন চরমপন্থির রিমান্ড মঞ্জুর

0

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোর অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়নের নবনির্বাচিত মেম্বার উত্তম সরকার হত্যাকা-ে জড়িত কথিত ৩ চরমপন্থির অস্ত্র আইনের মামলায় সোমবার রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এ বিষয়ে তদন্ত কর্মকর্তার করা আবেদনের শুনানি শেষে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক পলাশ কুমার দালাল প্রত্যেকের ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই রাজেশ কুমার দাশ তাদের ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়েছিলেন। কথিত ওই ৩ চরমপন্থি হলেন-অভয়নগর উপজেলার কচুয়া গ্রামের প্রফুল্ল বিশ্বাসের ছেলে সাধন বিশ্বাস, মনিরামপুর উপজেলার পাচাকড়ি গ্রামের সহদেব বিশ্বাসের ছেলে অজয় বিশ্বাস ও পাঁচকাটিয়া গ্রামের নির্মল পাড়ের ছেলে পলাশ পাড়ে। উল্লেখ্য, গত ১০ জানুয়ারি সন্ধ্যারাতে অভয়নগর উপজেলার হরিশংকরপুর গ্রামে নিজ বাড়ির কাছে চরমপন্থিদের গুলিতে নিহত হন সুন্দলী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত মেম্বার উত্তম সরকার। দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে তাকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী শ্রাবন্তী সরকার অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে অভয়নগর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। পরে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই শামীম হোসেন দু’দফায় অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৯ কথিত চরমপন্থিকে আটক করেন। এর মধ্যে অজয় বিশ্বাস, সাধন বিশ্বাস ও পলাশ পাড়েকে হত্যাকা-ে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্রসহ আটক করা হয়। আটকের পর সকলকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডিবি পুলিশ জানতে পারে, চাঁদার টাকা না পেয়ে উত্তম সরকারকে হত্যা করেছে কথিত চরমপন্থিরা। তবে অস্ত্রের উৎসসহ বিভিন্ন বিষয়ে জানতে গত ১০ ফেব্রুয়ারি আদালতে আটক অজয় বিশ্বাস, সাধন বিশ্বাস ও পলাশ পাড়ের ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানান অস্ত্র আইনের মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রাজেশ কুমার দাশ। সোমবার শুনানি শেষে তাদের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

Lab Scan