আশাশুনি পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ পেতে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

আহসান হাবিব,আশাশুনি (সাতক্ষীরা) ॥ সাতক্ষীরার আশাশুনি পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারী রনির বিরুদ্ধে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার নামে গ্রাহকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে বিদ্যুৎ সংযোগ বঞ্চিত ফটিকখালী ও দেয়াবর্ষীয়া গ্রামের সুশংকর গাইন, রিপন মণ্ডল, নিরঞ্জন গাইন ও প্রভাষ গাইন রবিবার ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ নিতে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে খাজরা ইউনিয়নের ফটিকখালী ও পার্শ¦বর্তী এলাকার ১৯৫টি পরিবারের মানুষ মিটার বাবদ ৪০০ টাকা করে জমা দেন। এরপর গত ১ডিসেম্বর ফটিকখালী গ্রামের ১৭৫টি বাড়িতে মিটার সংযোগ দেওয়া হয়। বাকি ২০টি পরিবার মিটার বঞ্চিত থাকে। দিন অতিবাহিত হতে থাকলে আবেদনকারীরা পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারী রনি হোসেনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি মিটার প্রতি ১০০ টাকা করে দাবি করেন। টাকা না দিলে মিটার সংযোগ দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দেন তিনি। এ ছাড়া রনি ফটিকখালী গ্রামের রাজেন্দ্র সরকারের ছেলে কমলেশ সরকারের কাছ থেকে মিটারসহ বিদ্যুৎ সংযোগ বাবদ ৫ হাজার টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। আশাশুনি পল্লী বিদ্যুতের অফিসে বিষয়টি অবহিত করা হলেও তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় হতাশ বিদ্যুৎ বঞ্চিত পারিবারগুলো। এ ঘটনায় সমস্যা দ্রুত সমাধানে পল্লীবিদ্যুতের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বিদ্যুৎ সংযোগ বঞ্চিত ভুক্তভোগী পরিবার।

ভাগ