আমি গাই কী, আর আমার সারিন্দা বাজায় কী

    লোকসমাজ ডেস্ক।। টিভিতে সরাসরি আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিচ্ছিলেন উপস্থাপক। স্টুডিওতে দাঁড়িয়ে কোনো স্থানের তুষারপাতের বর্ণনা দিচ্ছিলেন। পেছনের পর্দাতেও তুষারপাতের ছবি। অথচ গায়েবি আওয়াজ বলে উঠল, ‘কোনো তুষারপাত হয়নি।’ খানিকটা বোকা বনে যান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে কাটিয়েও ওঠেন। কারসাজিটা আসলে অ্যাপলের ভার্চ্যুয়াল সহকারী সিরির।
    গত বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির আবহাওয়ার পূর্বাভাস সম্প্রচারের সময় এ ঘটনা ঘটে। আবহাওয়াবিদ টমাস শ্যাফেনেকারের উপস্থাপনার সময় তাঁর হাতে থাকা অ্যাপল ওয়াচের সিরি হঠাৎই তাঁর বক্তব্যের উল্টো কথা বলে ওঠে। ঘটনাটির সংক্ষিপ্ত ভিডিও টুইটারে প্রকাশ করে বিবিসি। ভিডিওটির শিরোনামে লেখা হয়, ‘আপনি যখন আবহাওয়ার উপস্থাপক এবং আপনার ঘড়িটি আপনার পূর্বাভাসের বিরোধিতা করে।’ সিরির এমন অনাকাঙ্ক্ষিত আচরণ ইন্টারনেটে ব্যাপক হাস্যরসের সৃষ্টি করেছে।
    অ্যাপলের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ভার্চ্যুয়াল সহকারী সিরি এমনিতে তাঁর কাজে বেশ পারদর্শী। অ্যাপলের স্মার্টঘড়িতে সিরির সাহায্য নিতে চাইলে ‘হেই সিরি’ বলে ডাকতে হয়। এ ছাড়া নির্দিষ্ট বোতামে চাপলেও হাজির হয় সিরি। অ্যাপল ওয়াচের ক্ষেত্রে ঘড়িটির ‘ডিজিটাল ক্রাউন’ বোতামে চেপে ধরলেই সিরি সাড়া দেয়।
    তবে অ্যাপলের পণ্য ব্যবহারকারীরা মাঝেমধ্যেই অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে সিঁড়ি চালু হওয়ার অভিযোগ করেছেন। কখনো কখনো ব্যবহারকারীর কথোপকথনের ভিত্তিতেও হুট করে উত্তর দিয়ে বসে সিরি। একে বলে ফলস ট্রিগার। ভুল করে চালু হওয়া। সিরির এ আচরণ শোধরাতে অ্যাপল ওয়াচের তৃতীয় সংস্করণে সিরি চালু করার নতুন পদ্ধতি যুক্ত করা হয়। হাতে থাকা ঘড়িটি অনেকটা মুখের কাছে নিয়ে আসার মতো উঁচু করলেও চালু হয় সিরি। আর সে সুবিধাটিই কাল হয়ে দাঁড়িয়েছিল আবহাওয়াবিদ টমাসের।
    ভিডিওতে দেখা যায়, উপস্থাপনা করার সময় টমাস ঘন ঘন হাত উঁচু করছিলেন। আর সে কারণেই চালু হয়ে যায় সিরি। আর তুষারপাতের কথা শুনে সিরি জবাব দেয়, এখানে কোনো তুষারপাত হয়নি। এমন উল্টো জবাবের কারণ হিসেবে টমাস সঙ্গে সঙ্গেই বলেন, ‘মনে হয় ও জানে না আমি কোন জায়গার কথা বলছি।’ অনেকেই টমাসকে সিরির আপনা থেকে চালু হওয়ার সুবিধা বন্ধ করে রাখার পরামর্শ দিয়েছে। তবে এমন উদ্ভট অভিজ্ঞতার পর তিনি বোধ হয় উপস্থাপনার সময় আর অ্যাপল ওয়াচ পরবেন বলে মনে হয় না।
    সূত্র: ম্যাশেবল

    ভাগ