অবৈধ গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে দুই নার্স স্বামী শ্বশুর ও শাশুড়ি আটক

0

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা॥ সাতক্ষীরায় গৃহবধূর অবৈধ গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে বৃহস্পতিবার স্বামী ও দুই নার্সসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন, ভুক্তভোগী গৃহবধূর স্বামী শহরের পলাশপোল এলাকার বাবর আলীর ছেলে নাজমুল ইসলাম সজল (২৮), শ^শুর বাবর আলী (৪৮), শাশুড়ি পারভীন সুলতানা (৩৯)। শহরের মুনজিতপুর এলাকার তৌহিদুজ্জামানের স্ত্রী সাতক্ষীরা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের নার্স শিরিন সুলতানা (৩৯), কালিগঞ্জ উপজেলার কুশুলিয়া গ্রামের কাজী আজিমুদ্দীনের স্ত্রী সেবিকা মমতাজ শাহানারা লিলি (৩৭)। ওই গৃহবধূ জানান, যৌতুকের দাবিতে স্বামীসহ পরিবারের সদস্যরা তাঁর ওপর বিভিন্ন সময় নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। ১৪ আগস্ট সকালে আবারও তাকে মারধর করা হয়। ওই দিন বেলা ৩টার দিকে তাঁকে সদর থানার সামনে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে নিয়ে জোরপূর্বক অবৈধ গর্ভপাত ঘটায় স্বামীসহ শ^শুর বাড়ির লোকজন। পরবর্তীতে সুস্থ হয়ে ১ সেপ্টেম্বর (বুধবার) সদর থানায় তিনি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান, যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন ও অবৈধ গর্ভপাতের ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় ওই গৃহবধূ একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের দুই নার্সসহ গৃহবধূর স্বামী, শ^শুর, শাশুড়িকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন।

Lab Scan