যশোরে বিএনপির বিজয় দিবসের আলোচনা সভা করতে দেয়নি পুলিশ, নেতৃবৃন্দের নিন্দা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে প্রেস কাব যশোরে জেলা বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভা করতে দেয়নি পুলিশ। শুক্রবার সকাল থেকেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ প্রেস কাবের সামনে অবস্থান নেয়। এ সময় পুলিশ প্রেস কাব অভ্যন্তরে সাংবাদিক ছাড়া কোন দলীয় নেতাকর্মীকে ঢুকতে দেয়নি।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকেল তিনটায় প্রেস কাব যশোরের দ্বিতীয়তলার কনফারেন্স রুমে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে যশোর জেলা বিএনপি আলোচনা সভার আয়োজন করে। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিলো দলটির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী জননেতা তরিকুল ইসলামের।
কর্মসূচি অনুযায়ী শুক্রবার সকাল থেকে জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে প্রেস কাব মিলনায়তনে ব্যানার, চেয়ারসহ আনুসঙ্গিক জিনিসপত্র ঢুকানোর চেষ্টা করা হয়। এ সময় কোতয়ালি থানার এসআই ওয়াহিদুজ্জামানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ প্রেস কাবের প্রধান গেটে অবস্থান নিয়ে সাংবাদিক ছাড়া অন্য কাউকে ঢুকতে দেয়া হবে না বলে চিৎকার দিতে থাকেন। এমনকি প্রেস কাব গেট থেকে জোর করে বিএনপির সরবরাহকৃত চেয়ার বের করে দেয় পুলিশ।
এস আই ওয়াহিদুজ্জামানের কাছে কারণ সম্পর্কে তাৎক্ষণিক উপস্থিত সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিএনপির আজকের আলোচনা সভার কোন প্রশাসনিক অনুমতি না থাকায় এখানে কোনো সভা করতে দেয়া হবে না। এরপর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রেস কাব চত্বরে পুলিশ অবস্থান নিয়ে সেখানে বিএনপির কোনো নেতাকর্মী ঢুকতে দেয়নি।
বিষয়টি নিয়ে প্রেস কাব যশোরের সম্পাদক এস,এম তৌহিদুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, যশোর জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে শুক্রবার বিকেল তিনটায় প্রেস কাবের দ্বিতীয়তলার সভাকক্ষ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার জন্য বুকিং দেয়া হয়। সভাকক্ষ বুকিং দেয়ার সময় জেলা বিএনপি নেতাদের জানানো হয় পুলিশের অনুমতি সাপেক্ষে আলোচনা সভা করা যাবে। পরে শুক্রবার সকালে জানতে পারি পুলিশ সেখানে বিএনপির আলোচনা সভা করতে নিষেধ করেছে। খবর পেয়ে প্রেস কাবের পক্ষ থেকে পুলিশের একজন কর্মকর্তার কাছে জানতে চাইলে আমাদেরকে জানানো হয় কর্মসূচির ব্যাপারে জেলা বিএনপি কোন অনুমতি গ্রহণ করেনি। বিষয়টি প্রেস কাবের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক জেলা বিএনপি নেতাদেরকেও জানিয়ে দেয়া হয়।
এ বিষয়ে যশোর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু বলেন, কর্মসূচির ব্যাপারে আমরা বরাবরের মতো জেলা পুলিশের বিশেষ শাখায় লিখিতভাবে আবেদন করি। অতীতে আমরা প্রেস কাবে যতবার কর্মসূচি গ্রহণ করেছি ততবার ঠিক এমন প্রক্রিয়ায়ই অনুসরণ করেছি। অথচ অজ্ঞাত কারণে গতকাল পুলিশ আমাদের কর্মসূচি করতে দেয়নি। সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু বলেন, বিএনপি কোন চরমপন্থি, সন্ত্রাসী বা জঙ্গি দল নয় যে, তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পর্যন্ত করতে পারবে না। তিনি বলেন, একটি স্বাধীন সার্বভৌমত্ব রাষ্ট্রে বিএনপির মতো একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক সংগঠন মহান বিজয় দিবসের কর্মসূচি পালন করতে পারবে না এটা হতে পারে না। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।
এদিকে সকালে বিএনপির প্রয়াত নেতা শহীদ নাজমুল ইসলামের ৬ষ্ঠ শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা বিএনপি কার্যালয়ে আয়োজিত দোয়া মাহফিল অনুরুপ পুলিশ মোতায়েন করে পণ্ড করে দেয়া হয়। পরে দলটির নেতাকর্মীরা পার্শ্ববর্তী মসজিদে দোয়ার অনুষ্ঠান করেন।

ভাগ