বিচারকদের শৃঙ্খলাবিধির গেজেট গ্রহণ করেছেন আপিল বিভাগ

বিচারিক আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিধিমালা গেজেট আকারে প্রকাশের পর তা গ্রহণ করেছেন আপিল বিভাগ। বুধবার (৩ জানুয়ারি) দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।
আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে গেজেটের ওপর শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এছাড়াও গেজেটের বিরোধিতা করে শুনানি করেন ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলাম। এর আগে মঙ্গলবার গেজেট নিয়ে আদেশের জন্য বুধবার দিন ধার্য করেন আপিল বিভাগ। এর আগে গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের উদ্দেশে বলেন, ‘আজকে তো একজন বিচারপতি নেই। এটা তো (আদেশ) ফুল বেঞ্চে হতে হবে। তাই আদেশের জন্য আগামী ২ জানুয়ারি দিন নির্ধারণ করা হলো।’
প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালের ২ ডিসেম্বর মাসদার হোসেন মামলায় ১২ দফা নির্দেশনা দিয়ে রায় দেওয়া হয়। ওই রায়ের আলোকে বিচারিক আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলা বিধিমালা প্রণয়নের নির্দেশনা ছিল। সেই নির্দেশনা অনুসারে বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিধিমালা প্রণয়ন না করায় আইন মন্ত্রণালয়ের দুই সচিবকে পর্যন্ত গত বছরের ১২ ডিসেম্বর তলব করেছিলেন আপিল বিভাগ। এরপর গত বছর ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধি গেজেট আকারে প্রকাশ করতে সরকারকে বারবার সময় দেন আপিল বিভাগ। কিন্তু কয়েক দফা সময় নিয়েও গেজেট প্রকাশে ব্যর্থ হয় সরকার।
এ বিষয় নিয়ে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার সঙ্গে আইনমন্ত্রীর আলোচনায় বসার কথা থাকলেও তা সম্ভব হয়নি। পরে বিষয়টি নিয়ে দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞাসহ আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা শেষে আইনমন্ত্রী গেজেট প্রকাশ দ্রুত সময়ের মধ্যে হচ্ছে বলে জানিয়েছিলেন। অবশেষে গত বছরের ১১ ডিসেম্বর গেজেটটি প্রকাশ পায়।

ভাগ