বিএনপির জনপ্রিয়তা বাড়ছে: নজরুল ইসলাম খান

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর তার জনপ্রিয়তা আরও বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, ‘বিএনপির ওপর যত আঘাত করা হচ্ছে, ততই দলের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। জনগণের কাছে আমাদের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে।’ রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)’ আয়োজিত ‘খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে চিকিৎসক সমাবেশে’ তিনি এসব কথা বলেন। নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ চেয়েছিল খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপির নেতাকর্মীরা গাড়ি ভাঙচুর করুক। এই সুযোগে আওয়ামী লীগ গাড়িতে আগুন দিয়ে মানুষ মারবে, আর দোষ চাপাবে বিএনপির ওপর। যেহেতু এই সাজাকে কেন্দ্র করে বিএনপি কোনও সহিংস আন্দোলনে যায়নি, তাই সরকারি দল হতাশ। আমাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলন সরকারের পছন্দ হয়নি।’
বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘বিএনপি সহিংস আন্দোলন করছে না বলে সরকারের মন্ত্রীরা বলছেন রায় ও সাজা নিয়ে তেমন কোনও প্রতিক্রিয়া দেখছেন না। আমি তাদের কাছে প্রশ্ন রাখতে চাই, ৭৫-এ বঙ্গবন্ধুর নৃশংস হত্যার পর আপনাদের প্রতিক্রিয়া কোথায় ছিল? তখন সংসদে আপনাদের ৩০০ জন এমপি ছিলেন, আপনারা ছাড়া দেশে কোনও রাজনৈতিক দলও ছিল না, তাহলে কেন দেশের কোনও প্রত্যন্ত অঞ্চলেও প্রতিবাদ করতে পারেননি?’
খালেদা জিয়া ন্যায় বিচার পাননি অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সুবিচার হবে কীভাবে? এর আগে তারেক রহমানকে একটি মামলায় বিচারপতি খালাস দেওয়ায় তাকে দেশ ছাড়তে হয়েছিল। প্রধান বিচারপতিকেও রোগী বানিয়ে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়েছে। তাহলে বিচারপতিরা কীভাবে সরকারের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গিয়ে রায় দেবেন?’
খালেদা জিয়ার নির্দেশে ও তারেক রহমানের পরামর্শে বিএনপি কাজ করছে জানিয়ে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমরা খালেদা জিয়ার নির্দেশে ও আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের পরামর্শে কাজ করে যাচ্ছি। নেতাকর্মীদের বলব, আপনারা সতর্ক থাকবেন। আবেগের বশবর্তী হয়েও কোনও ষড়যন্ত্রে পা দেবেন না।’ ড্যাবের সহ-সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন ড্যাবের মহাসচিব ও বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সহ-সম্পাদক কাদের গনি চৌধুরী প্রমুখ।

ভাগ