বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেবে ভারত

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বলেছেন, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তান থেকে যে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান শরণার্থীরা ভারতে এসেছেন, তাদের কোনো চিন্তা নেই। শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দিয়ে দেবে ভারত সরকার। কিন্তু এনআরসি (নাগরিকপঞ্জি) তৈরি হবেই এবং বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করা হবেই।
শনিবার পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় যুব জনতা মোর্চার সভায় তিনি এসব কথা বলেছেন।
অমিত শাহ তার বক্তৃতাও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গ থেকে মমতা সরকারকে উপড়ে ফেলার চ্যালেঞ্জ ঘোষণা করেছেন।
একই সঙ্গে নাগরিকপঞ্জি নিয়েও মমতার বিদ্রোহকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে তিনি বলেছেন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান শরণার্থীদের এ দেশে নাগরিক করতে বিল আনবে কেন্দ্র, সেই বিল আইনে পরিণত করা আটকানোর ক্ষমতা থাকলে মমতা আটকান।
তিনি বলেন, ‘বাংলার সব জেলায় গণতন্ত্রের আওয়াজ পৌঁছবে। আমরা বাংলাবিরোধী নই, কিন্তু মমতাবিরোধী। মমতা সরকারকে উৎখাত করতে হবে।’
বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি বলেন, ‘পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টানরা শরণার্থী। তাদের জন্য নাগরিকত্ব বিল আনা হবে।’
আসামের নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়া মুসলমানদের দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘বাংলার মানুষকে বলতে চাই বিদেশি অনুপ্রবেশকারীদের বার করাই নাগরিকপঞ্জি। আমাদের কাছে দেশ আগে, পরে অনুপ্রবেশকারী।’

ভাগ