দাপুটে জয়ে ভারতের প্রতিশোধ

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হেরে শুরু হয়েছিল ভারতের নিদাহাস ট্রফির মিশন। স্বাগতিকদের বিপক্ষে দ্বিতীয়বারের সাক্ষাতে প্রতিশোধ পর্বটা সেরে নিলো ভারত। সোমবার আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামের ম্যাচে লঙ্কানদের ৬ উইকেটে হারিয়েছে রোহিত শর্মারা। বৃষ্টির কারণে নিদাহাস ট্রফির চতুর্থ ম্যাচটি শুরু হয়েছে নির্ধারিত সময়ের প্রায় দেড় ঘণ্টা পর। তাই ম্যাচটি ১ ওভার কমে দাঁড়ায় ১৯ ওভারে। বৃষ্টিবিঘ্নিত এই ম্যাচে লঙ্কানরা নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে স্কোরে জমা করতে পারে ১৫২ রান। জবাবে ৯ বল আগেই ভারত জয় নিশ্চিত করে ৪ উইকেট হারিয়ে।
ভারতের জয়ে বোলিংয়ে আলো ছড়িয়েছেন শারদুল ঠাকুর। ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা এই পেসার ২৭ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। আর ব্যাটিংয়ে জয় নিশ্চিত করেছেন মনিশ পান্ডে ও দিনেশ কার্তিক। ৩১ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় মনিশ খেলেছেন হার না মানা ৪২ রানের ইনিংস। আর ২৫ বলে ৫ বাউন্ডারিতে কার্তিক অপরাজিত ৩৯ রানের ইনিংস খেলে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন। তাদের আগে ১৫ বলে ২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে যান সুরেশ রায়না। লোকেশ রাহুল হিট উইকেট হওয়ার আগে ১৭ বলে করেন ১৮ রান। ওপেনিংয়ে অবশ্য ভারতকে ভালো শুরু এনে দিতে পারেননি রোহিত ও শিখর ধাওয়ান। ভারতীয় অধিনায়ক করেন ১১ রান, আর ধাওয়ান আউট হন মাত্র ৮ রানে। এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শ্রীলঙ্কার শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। ওপেনার দানুশকা গুনাথিলাকার ব্যাটিং তাণ্ডবে ২.১ ওভরেই স্বাগতিকরা পায় ২৫ রান। কিন্তু গুনাথিলাকার আউটের পর পাল্টে যায় দৃশ্য। ৮ বলে ১৭ রান করে শারদুল ঠাকুরের বলে তিনি আউট হওয়ার পরপরই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা কুশল পেরেরা (৩)। ওই ধাক্কা অবশ্য কাটিয়ে উঠেছিল স্বাগতিকরা কুশল মেন্ডিস ও উপুল থারাঙ্গার ব্যাটে। কুশল মেন্ডিস ঝড়ো ব্যাটিংয়ে তুলে নেন নিদাহাস ট্রফির টানা দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত ৩৮ বলে ৩ চার ও ৩ ছক্কায় খেলেন ৫৫ রানের কার্যকরী ইনিংস।
থারাঙ্গা কিছুটা ঠাণ্ডা মাথায় ছিলেন। তবে বেশিদূর এগোতে পারেননি, আউট হয়ে যান ২২ রানে। এরপর অধিনায়ক থিসারা পেরেরা তাণ্ডব শুরু করলেও ৬ বলের ইনিংস শেষ হয়ে যায় ১৫ রানে। জীবন মেন্ডিসও ব্যর্থ (১)। দাসুন শানাকা চেষ্টা করেছিলেন, তবে ১৬ বলে ১৯ রানের বেশি করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ১৯ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কা করতে পারে ১৫২ রান। ক্রিকইনফো

ভাগ