চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি: বাংলাদেশকে ফাইনালে দেখছেন সালাহউদ্দিন

‘এই যুগে এসে কন্ডিশনের দোহাই, তাও আবার আপনি প্রায় দেড় মাস যাবৎ ওইখানে আছেন। পেশাদার হিসেবে তাই ওই কন্ডিশনে এতোদিনে মানিয়ে নেওয়া আপনার দায়িত্ব’- কন্ডিশনের কথা উঠতে পরিবর্তন ডট কমকে এভাবেই কথাগুলো বললেন কোচ সালাহউদ্দিন। সোমবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। লড়াইটা স্বাগতিকদের সাথে বলেই তার আগে বারবার ঘুরে ফিরে আসছে ইংলিশ কন্ডিশন। তবে সালাহউদ্দিনের মতে কন্ডিশন নিয়ে ভাবার সময় এখন না। বাংলাদেশ দলের বর্তমান অবস্থান ও মান অনুযায়ী যে কোনো কন্ডিশনে যে কোনো দলের মোকাবেলা করার সামর্থ্য থাকা উচিত। তাছাড়া বাংলাদেশ দল এক মাসের বেশি সময় ধরেই ইংলিশ-আইরিশ-ইংলিশ কন্ডিশনে আছে। গত ২৬ এপ্রিল ইংল্যান্ডের সাসেক্সে ১০ দিনের ক্যাম্প করার পর আয়ারল্যান্ড ছিল প্রায় ২০ দিন। আর ইংলিশ কন্ডিশনের সঙ্গে আইরিশ কন্ডিশনের অনেকটাই মিল। দীর্ঘসময় সেখানে কাটিয়ে ওই কন্ডিশন নখদর্পণে চলে আসার কথা বলে মনে করেন সাকিব-তামিম-মুশফিকদের প্রিয় কোচ সালাহউদিন। শুধু কন্ডিশন নয়, সালাহউদ্দিনের আপত্তি ‘গ্রুপ অব ডেথ’ কথাতেও। উল্টো প্রশ্ন জুড়ে দেন, ‘বাংলাদেশ কি আগের অবস্থানে আছে’? বর্তমান বাংলাদেশ ওয়ানডের বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে ৬ নম্বর দল। তাই সবসময় বাঘা বাঘা দলকে মোকাবেলা করার সাহস ও সামর্থ্য থাকা উচিত বলে মনে করেন তিনি। ‘এখন এসব গ্রুপ ট্রুপ চিন্তা করে লাভ নেই। এখন বাংলাদেশ যেখানে খেলবে সেখানে হয়তো ভারত-পাকিস্তান পড়বে কিংবা অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড পড়বে। এখানে গ্রুপ অব ডেথ বলেও কিছু নেই। আপনি এখন ছয় নম্বর দল। এখন কোন গ্রুপে কারা আছে তা নিয়ে ভাবা আমার মনে হয় উচিত না-’ দীর্ঘ সময় বাংলাদেশ দলের সাথে কাটানো সালাহউদ্দিনের সাফ কথা।
কন্ডিশন কিংবা গ্রুপ কোন কিছু নিয়েই ভাবতে রাজি নন সালাহউদ্দিন। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে প্রস্তুতি ম্যাচে রানের পাহাড় গড়েও বাংলাদেশ হেরে গেছে র‌্যাংকিংয়ে তাদের দুই ধাপ নিচে থাকা পাকিস্তানের কাছে। এই হারকে বড় করে দেখতেও আপত্তি সালাহউদ্দিনের। প্রস্তুতি ম্যাচের হারকে এমন বড় বানানোর কোন যুক্তি নেই বলে জানান তিনি। দলের খেলোয়াড়দের দেখে নেওয়ার জন্যই প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা হয় বলে জানিয়ে দেন সালাহউদ্দিন, ‘একটা প্রস্তুতি ম্যাচ হেরেছে এটা নিয়ে এতো মাতামাতির কি আছে?’ ‘প্রস্তুতি ম্যাচ মানে প্রস্তুতি। এটা হেরে গেল কি জিতে গেল তাতে কিছু আসে যায় না। এটা কোনো স্কোরবোর্ডে লেখা হবে না। এখানে কোচদের একটা ব্যপার থাকে, আমি কোন কোন খেলোয়াড়কে খেলাবো, তারা কিভাবে পারফর্ম করে দেখবে। কিংবা সে যে পরিকল্পনা করে তা খেলোয়াড়রা কতটুকু পূরণ করতে পারে তা দেখে নেওয়ার জন্য-’ ব্যাখ্যা টেনে বলেন মাশরাফি বিন মুর্তজার বিপিএল কোচ সালাহউদ্দিন।
বাংলাদেশ দলের মনোবল তুঙ্গে থাকলে যে কোন দলকেই হারাতে পারে। উড়িয়ে দিতে জানে। কিন্তু মনোবলে চির থাকলে দুর্বল দলের বিপক্ষে জয়টাও কঠিন হয়ে যায়। তাই ‘মোমেন্টাম’ বরাবরই আলাদা গুরুত্ব বহন করে টাইগারদের জন্য। এ কথা জানেন সালাহউদ্দিন। তবে প্রস্তুতি ম্যাচের সঙ্গে মোমেন্টামের কোনো সম্পর্ক নেই বলে জানান তিনি। যোগ করে বলেন এটা শুধু বাংলাদেশ নয় সব দলের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। তাহলে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে বাংলাদেশ কেমন করবে বলে ভাবছেন সালাহউদ্দিন। গ্রুপ পর্ব উতরে সেমি-ফাইনালে খেলতে পারবে? এই প্রশ্নে রীতিমতো ছক্কা হাঁকিয়ে প্রত্যাশাকে আকাশে পাঠিয়ে দিলেন দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে এই সময়ের সবচেয়ে সফল কোচ সালাহউদ্দিন! ‘শুধু সেমি-ফাইনাল? এখন যে অবস্থা তাতে আমি এটাই আশা করি বাংলাদেশ ট্রফি জিতবে। কমপক্ষে ফাইনাল তো খেলবে–’ যেন সকল প্রশ্নের জবাব এই এক কথাতেই দিয়ে নিজের পথ ধরেন সালাহউদ্দিন।

ভাগ