কালেক্টরেট পার্কে যুবক হত্যাকান্ডে জড়িত ফিরোজ ও অন্তরা দেড় মাসে আটক হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোর কালেক্টরেট পার্কে যুবক রনি ওরফে বাবু হত্যাকানেন্ড জড়িত কিলার ফিরোজ ও অন্তরাকে আজো আটক করতে পারেনি পুলিশ। হত্যাকান্ডের দেড় মাস পার হয়ে গেলেও খুনিরা আটক না হওয়ায় নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
গত ১ ডিসেম্বর বিকেলে কালেক্টরেট পার্কে বান্ধবীর সাথে গল্প করতে গিয়ে খুন হন রনি ওরফে বাবু নামে ওই যুবক। শংকরপুর এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ফিরোজ ও তার ভাইয়ের শ্যালিকা অন্তরাসহ আরো কয়েকজন তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। কিলার ফিরোজ শংকরপুর এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে। অপরদিকে অন্তরা একই এলাকার আকবর আলীর মেয়ে। অন্তরার প্রেমের ডাকে সাড়া না দেওয়ায় বাবুকে হত্যা করা হয়। অন্তরা তার বোনের দেবর ফিরোজকে ডেকে নিয়ে গিয়ে বাবুকে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের মা আয়েশা বেগম বাদী হয়ে ফিরোজ ও অন্তরাকে আসামি করে কোতয়ালি মডেল থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করছেন থানা পুলিশের এসআই জসিম উদ্দিন খান। কিন্তু হত্যাকান্ডের দেড় মাস পার হয়ে গেলেও কিলার ফিরোজ ও অন্তরাকে আজো আটক করতে পারেনি পুলিশ। বাবু হত্যাকান্ডের পর থেকে ফিরোজ ও অন্তরা স্ব-পরিবারে পলাতক রয়েছে। কিন্তু পালিয়ে কোথায় রয়েছে তা পুলিশ আজো জানতে পারেনি। তবে অভিযোগ রয়েছে, ফিরোজ ও অন্তরা এবং তাদের পরিবারের লোকজন নড়াইলে আত্মগোপন করে রয়েছে। পুলিশ একটু তৎপর হলে আসামিদের সন্ধান পেতে পারে বলে অনেকে মনে করেন। এ কারণে আসামিদের বর্তমান অবস্থান চিহ্নিত ও তাদের আটকের জোর দাবি করা হয়েছে। অবশ্য মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই জসিম উদ্দিন খান জানান, আসামিরা পালিয়ে কোথায় রয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তাদের অবস্থান জানার জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

ভাগ