কালীগঞ্জে পুলিশ পরিচয়ে মোবাইল ফোন ছিনতাই

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) অফিস ॥ দ্রুতগামী মোটরসাইকেলটি হঠাৎ আমাদের সামনে দাঁড়িয়ে পড়লো। মোটরসাইকেলে থাকা একজন আমাদের বাড়ি কোথায় জিজ্ঞাসা করলো। উত্তর না দিতেই আরেকজন উচ্চকণ্ঠে বলে উঠলো, মোবাইল ফোনে মেয়েদের হুমকি দিস? আমরা পুলিশের লোক। দুই জনেরই ফোন দে। কললিস্ট চেক করতে হবে। মোটরসাইকেলে আসা দুইজনের কাছেই রিভলবার ও হ্যান্ডক্যাপ থাকায় ভয়ে আমরা ফোন দুটি তাদেরকে দিয়ে দেই। ফোন হাতে নিয়েই বলে আমাদের সাথে চল, মেয়ের বাড়ি যেতে হবে। এরপর মোটরসাইকেল স্ট্রার্ট দিয়ে পুলিশ পরিচয় দেয়া ওই দু’জন দ্রুতগতিতে চলে যায়। ছিনতাইয়ের ঘটনা এভাবেই বর্ণনা করেন মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের শিকার হওয়া দুই বন্ধু কলেজ শিক্ষার্থী সজীব দাস (১৮) ও শান্ত বিশ্বাস (১৮)। সজিব দাস কলেজপাড়ার রমেশ দাসের ছেলে এবং শান্ত বিশ্বাস নিশ্চিন্তপুরে মনোরঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে। তারা দু’জনেই মাহতাব উদ্দীন ডিগ্রি কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্র। ছিনতাইয়ের এই ঘটনাটি ঘটেছে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়া গ্রামে।
সজীব ও শান্ত জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়ার একটি রাস্তা দিয়ে প্রাইভেট পড়ে বাইসাইকেলে ফিরে আসার সময় একটি মোটরসাইকেল তাদের গতিরোধ করে। মোটরসাইকেলে থাকা দুইজন পুলিশ পরিচয়ে হুমকি-ধামকি দিয়ে আমাদের কাছে থাকা দু’টি এনড্রয়েড ফোন নিয়ে নেয়। পরে তাদের সাথে মেয়ের বাড়িতে যেতে হবে বলে মোটরসাইকেল স্ট্রার্ট দিয়ে দ্রুতগতিতে সটকে পড়ে। এই বিষয়ে জানতে চাইলে কালীগঞ্জ থানার ওসি মিজানুর রহমান খান জানান, এ ব্যাপারে আমার কাছে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ভাগ