কপিলমুনিতে প্রতিবন্ধি ভাতার কার্ড করে দেয়ার নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

কপিলমুনি (খুলনা) সংবাদদাতা ॥ কপিলমুনিতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধির রেজিস্ট্রেশন বই পাশ করিয়ে দেওয়ার নাম করে উপজেলার কপিলমুনি ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম মেম্বারের বিরুদ্ধে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার। তা ছাড়া প্রতিবন্ধি, অসহায়-গরিবদের বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা ও ভিজিডির কার্ড এবং সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের উপকরণ দেওয়ার নাম করে সালাম মেম্বারের বিরুদ্ধে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। এর মধ্যে কারো কার্ড করে দেওয়া হয়েছে আবার আজ নয় কাল বলে ২৪ ঘণ্টা অসহায়দেরকে ঘুরানো হচ্ছে বলে এলাকার মাহমুদ আমে একজন জানিয়েছেন। কার্ড বাবদ তাদের হাজার হাজার টাকা দিলেও তার কোন খবর নেই। এমন এক ভুক্তভোগী কপিলমুনি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের আব্দুল মজিদ গাজী তার দৃষ্টি প্রতিবন্ধি পুত্র আব্দুস সালাম গাজীর জন্য উপজেলা সমবায় দফতর থেকে কার্ড সংগ্রহ করে দেওয়ার নাম করে মেম্বার সালামকে ২৫০০ টাকা দিয়েও কোন কার্ড পাননি। মেম্বার সালাম বলেছেন, আরো তিন হাজার টাকা দিলে কার্ড হবে। বুধবার হতদরিদ্র আব্দুল মজিদ অর্থ ফিরে পাওয়ার আশায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর মেম্বার সালামকে বাদী করে অভিযোগ দাখিল করেছেন।

ভাগ